ধাপে ধাপে এস্তোনিয়ায় উচ্চশিক্ষা

সংক্ষিপ্ত পরিচিতি

এস্তোনিয়া উত্তর-পূর্ব ইউরোপের একটি রাষ্ট্র। এর রাজধানীর নাম তাল্লিন। ইস্তোনিয়া দেশটি বাল্টিক সাগরের পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত। ইস্তোনিয়া বাল্টিক দেশগুলির মধ্যে ক্ষুদ্রতম এবং সবচেয়ে উত্তরে অবস্থিত। লাটভিয়া ও লিথুয়ানিয়া অপর দুইটি বাল্টিক রাষ্ট্র। ইস্তোনিয়ার পশ্চিমে বাল্টিক সাগরের অপর প্রান্তে সুইডেন অবস্থিত। দক্ষিণে রয়েছে লাতভিয়া, পূর্বে রাশিয়া, এবং উত্তরদিকে ফিনল্যান্ড উপসাগরের অপর তীরে ফিনল্যান্ড। দেশটির আয়তন ৪৫৩৩৯ বর্গ কিঃমিঃ এবং জনসংখ্যা প্রায় ১৩১৫,৯৪৪ লক্ষ। এটি একটি সেনজেনভুক্ত দেশ। দেশটি প্রযুক্তির জন্য ভালো। স্কাইপি (Skype) এর নাম তো অনেকেই শুনেছেন, অডিও – ভিডিও কথা বলার জন্য একটি অন্যতম মাধ্যম। জনপ্রিয় এই স্কাইপি (Skype) এর প্রতিষ্ঠা কিন্তু তাল্লিন, এস্তোনিয়াতে। যদিও মাইক্রোসফট ২০১১ সালে স্কাইপি কিনে নিয়েছেন।

কিছু বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় (যেখানে ইংরেজি কোর্স অফার করে):

ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টসদের জন্য ইংরেজি মাধ্যমে পড়াশুনার জন্য ০৫ টি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় গুলি হলঃ



বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময় ও প্রক্রিয়াঃ

ইস্তোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বছরে ০১ টি সেশানে ভর্তির সুযোগ দিয়ে থাকে। আবেদনের সময়কাল ডিসেম্বর থেকে মে পর্যন্ত।
ভর্তির যোগ্যতা ও ডকুমেন্টস সমূহঃ
একাডেমিক ও ভাষাগত যোগ্যতাসমূহঃ
  • একাডেমিক পরীক্ষায় ৫১% নম্বর ( ইউনিভার্সিটি টু ইউনিভার্সিটি ভ্যারি করে )
  • IELTS 5.5 -6.5 ( ইউনিভার্সিটি টু ইউনিভার্সিটি ভ্যারি করে )
ইউনিভার্সিটিতে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসঃ
  • অনলাইন/অফলাইন অ্যাপ্লিকেশান
  • এইচ.এস.সি ও এস.এস.সি এর ট্রান্সক্রিপ্ট ও সার্টিফিকেট ( যদি লাগে )
  • ০১ টি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।(ছবির পিছনে অবশ্যই নিজের স্বাক্ষর থাকতে হবে)
  • ইউরোপাস ফরম্যাটের সিভি
  • সর্বশেষ একাডেমিক ট্র্যান্সক্রিপ্ট ও সার্টিফিকেটের নোটারাইজ কপি
  • মোটিভেশন লেটার অথবা থিসিস প্রপসাল। (থিসিস প্রপসাল মাস্টার ও পিএইচডি আবেদনকারীদের জন্য)
  • ইংলিশ প্রফিসিয়ান্সি সার্টিফিকেট(আইইএলটিএস ৫.৫ অথবা যদি আপনার পূর্বের পড়াশুনার ভার্সন সম্পূর্ণ রূপে ইংলিশ হয় তার নোটারাইজ কপি)
  • পাসপোর্টের কপি
  • কাজের অভিজ্ঞতার সার্টিফিকেট ( যদি থাকে )
  • অ্যাপ্লিকেশান ফী পরিশোধের রশিদ/প্রমাণ
বিঃদ্রঃ তাল্লিন বিশ্ববিদ্যালয় এবং তাল্লিন প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শুধুমাত্র মাস্টারস এ আবেদনকারীদের জন্য ব্যাচেলর এ কমপক্ষে ৬০% মার্কস থাকতে হবে। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন ধরাবাঁধা নিয়ম নেই।
উপরোক্ত ইংলিশ প্রফিসিয়ান্সি সার্টিফিকেট যদি আপানর না থাকে তারপরেও আপনি ভর্তি হতে পারবেন, সেজন্য আপনাকে ০১ বছরের ইংরেজি ভাষা শিক্ষা কোর্সে ভর্তি হতে হবে। এই কোর্স ফি কম – বেশি ৪০০০ ইউরো এবং এই সুযোগটি শুধুমাত্র তাল্লিন প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আছে।



টিউশন ফীঃ ব্যাচেলর ও মাস্টার্স প্রোগ্রামে সাধারণত প্রতি বছরে টিউশন ফি ১৭০০ থেকে ৭৫০০ ইউরো পর্যন্ত লাগতে পারে। চিকিৎসা বিষয়ে সেটা ১০০০০ – ১২০০০ ইউরো পর্যন্ত হতে পারে।
*** তবে পিএইচডি প্রোগ্রামে কোন টিউসান ফী নেই।
বিঃদ্রঃ তাল্লিন প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কিছু মাস্টার প্রোগ্রামে টিউসান ফী নেই।

স্কলারশিপঃ

এখানে খুঁজুনঃ http://haridus.archimedes.ee/en/scholarships

কিভাবে আপনার ডকুমেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের এড্রেসে পাঠাবেনঃ

ডকুমেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের এড্রেসে পাঠানোর পদ্ধতি নিয়ে অবশ্যই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে যোগাযোগ করবেন। যদি আপনি নিজে প্রেরক হয়ে পাঠাতে চান তাহলে অবশ্যই নোটারাইজ কপি পাঠাতে হবে। কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষ নির্দেশনা থাকে এইরূপ যে, “আপনার সর্বশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আপনার পক্ষ থেকে ( প্রেরক হয়ে ) শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব খামে সকল ডকুমেন্ট(নোটারাইজ করার দরকার নেই) পোস্ট বা কুরিয়ারে ইস্তোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের এড্রেসে পাঠাতে হবে” তখন ব্যাক্তিগত নিজের নাম ব্যাবহার করে ডকুমেন্ট পাঠালে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।
কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয়/প্রোগ্রাম এর ক্ষেত্রে আপনার একাডেমিক দক্ষতা ও ইংরেজি দক্ষতা যাচাইয়ের জন্য স্কাইপ ইন্টারভিউ নিতে পারে। স্কাইপ ইন্টারভিউ দেওয়ার ০৩ সপ্তাহের মধ্যে আপনার ই-মেইলে ভর্তির ফলাফল জানানো হবে।

ভিসা সংক্রান্ত তথ্যঃ

আমাদের দেশে ইস্তোনিয়ার কোন দূতাবাস বা কনস্যুলেট নেই। আপনাকে ভিসার জন্য পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের নয়া দিল্লি যেতে হবে।
এস্তোনিয়ান এমব্যাসি নয়া দিল্লী, ভারত এর ওয়েবসাইট ও ঠিকানাঃ
Address:

C15, Malcha Marg, Chanakyapuri

New Delhi, 110 021

India

Tel +91 11 4948 8650
Tel (+372) 613 4850 (calls from Estonia)
Fax +91 11 4948 8651
Email: Embassy.New-Delhi@mfa.ee
Visa queries: consul.delhi@mfa.ee
Consular and visa reception: Mondays, Wednesdays and Fridays 10.00-13.00 (except bank holidays)
কিভাবে ভিসার জন্যে আবেদন করবেনঃ



I. প্রথমে আপনাকে https://rakendused.vm.ee/consul/broneerimine/index.php?keel_id=2 এই লিঙ্কে ক্লিক করে ভিসা এপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে।
ভিসা আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস লিস্ট এই লিঙ্কে পাবেনঃ http://www.newdelhi.vm.ee/consular_information/dvisa
II. তারপর আপনাকে টেম্পোরারি রেসিডেন্স পারমিটের জন্য আবেদন করতে হবে।
টেম্পোরারি রেসিডেন্স পারমিটের জন্য কিভবে আবেদন করবেন এবং কি কি ডকুমেন্টস লাগবে, কত টাকা দেখাতে হবে, সবকিছু পাবেন নিচের লিঙ্কেঃ
নোটঃ ইস্তোনিয়ান ভিসা প্রসেস হতে ০৩ মাস সময় লাগে। ভিসা ইন্টারভিউ পর কিছুদিন পর পর আপনার ই-মেইল চেক করবেন। যাতে আপনার ইউনিভার্সিটি বা এম্বাসির কোন ই-মেইল আসলেই সাথে সাথে জবাব দিতে পারেন। কেননা অনেক সময় টেম্পোরারি রেসিডেন্স পারমিট এপ্রুভ হতে সময় বেশি নেয়। তাই অন টাইমে ক্লাস যোগদানের জন্য এম্বাসি শর্ট টার্ম ভিসা আবেদন করার পরামর্শ দিতে পারে। এম্বাসির এইরূপ পরামর্শ পাবার পর, অতি দ্রুত আপনাকে নিউ দিল্লি গিয়ে শর্ট টার্ম ভিসার আবেদন করতে হবে এবং শর্ট টার্ম ভিসা আপনাকে ৭ দিনের ভিতর দিবে। এরপর টেম্পোরারি রেসিডেন্স পারমিট কার্ড আপনাকে ইস্তোনিয়া যাবার পর নিতে হবে।

পার্ট টাইম কাজ ও অন্যান্য তথ্য

এস্তোনিয়াতে বিদেশি স্টুডেন্টস দের জন্য পার্ট – টাইম জবের জন্য কোন ধরাবাঁধা নিয়ম নেই। আপনি পড়াশোনা ঠিক রেখে যত ইচ্ছা জব করতে পারবেন। লিভিং কোস্ট নির্ভর করে আপনার জীবন যাপন কি রূপ হবে তার উপর। ইস্তোনিয়ায় ৩০০ থেকে ৫০০ ইউরো প্রতি মাসে খরচ হতে পারে। পার্ট টাইম কাজের জন্য আপনাকে অবশ্যই ইস্তোনিয়ান ভাষা জানতে হবে। আপনার টেম্পোরারি রেসিডেন্স পারমিট শেষ হওয়ার পর, আপনি ইচ্ছা করলে লঙ টার্ম রেসিডেন্স পারমিটের জন্য আবেদন করতে পারবেন তবে তার জন্য আপানকে ইস্তোনিয়ান ভাষা, পার্মানেন্ট জব সহ আর কিছু রিকুয়ারমেন্ট পূরণ করতে হবে। পড়াশোনা শেষে আপনি ৬ মাসের জব সার্চ ভিসা পাবেন।
বিস্তারিত: http://www.studyinestonia.ee/
ফেসবুক মন্তব্য
Print Friendly, PDF & Email

Mahedi Hasan

Founder at BSCE
স্বপ্নবাজ ও ভ্রমণপিপাসু একজন মানুষ। নতুন কিছু জানতে ও শিখতে ভালো লাগে। নিজে যা জানি তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি।

আমার সম্পর্কেঃ http://www.hmahedi.com
Mahedi Hasan
 
শেয়ার করুনঃ

Mahedi Hasan

স্বপ্নবাজ ও ভ্রমণপিপাসু একজন মানুষ। নতুন কিছু জানতে ও শিখতে ভালো লাগে। নিজে যা জানি তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার সম্পর্কেঃ http://www.hmahedi.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *