হাঙ্গেরি ও স্লোভেনিয়া সম্পর্কে আমার অভিজ্ঞতা

আস্-সালামু আলাইকুম!!!

আশা করি সকলে মহান আল্লাহ্ তা’আলার অশেষ কৃপায় ভালো আছেন।

গত বেশ কয়েক দিন্ যাবৎ আমার অনেক বন্ধু-বান্ধব এবং শুভাকাঙ্খী বিশেষ এ Group-এর সাথে যাঁরা দীর্ঘ দিন্ ধরে সংযুক্ত এবং বিভিন্ন সময়ে এ Group-এর কল্যাণের জন্য বিভিন্ন সময় ব্যয় করেছেন তাঁদের অনেকেই আমাকে বারবার করে বলেছেন ভাই Hungary থেকে Slovenia-তে আসার কারণ কী? কিংবা যদি Slovenia এবং Hungary এ দুইটি দেশের মধ্যে একটি তুলনামূলক চিত্র বর্ণনা করতেন তাহলে সবাই এ থেকে একটা পরিষ্কার Guideline পেতো কেননা “Hungary”-এ দেশটি যদিও বর্তমান সময়ে আমাদের কাছে কিছুটা হলেও পরিচিতি পেয়েছে কিন্তু Slovenia এ দেশটি সম্পর্কে আমাদের দেশের খুব বেশী মানুষের ধারণা নেই বিস্তারিতভাবে। কিন্তু আমার সময়ের স্বল্পতা এবং বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত থাকার কারণে আমার পক্ষে এতো দিন্ Post লিখা সম্ভব হয় নি। এজন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।



সে যা-ই হোক, আমি তাহলে এখন আপনাদের সামনে তুলে ধরেছি এ দুইটি দেশের মধ্যাকার একটা তুলনামূলক চিত্রকে।

Slovenia এবং Slovenia-তে উচ্চশিক্ষা এ বিষয়ে এ Group-এ কয়েক দিন্ আগে অবশ্য একটা Post-লিখেছিলাম। আপনারা খুঁজলে এখনও সেটি বের করতে পারবেন।

Slovenia আসলে Central Europe-এ অবস্থিত ছোটো একটি দেশ যাঁর আয়তন 7,827 বর্গমাইলের কাছাকাছি এবং দেশটির মোট জনসংখ্যা বিশ লক্ষ থেকে কিছু বেশী। অর্থাৎ বলা যায় আমাদের বাংলাদেশের মোট আয়তনের সাত ভাগের এক ভাগ Slovenia এবং ঢাকা শহরের শুধু মাত্র মিরপুর এলাকায় যতো সংখ্যক মানুষ বসবাস করেন Slovenia-এর জনবসতি তার থেকেও কম। Slovenia-এর উত্তরে Austria, উত্তরপূর্বে Hungary, পশ্চিমে Italy, দক্ষিণ-পূর্বে Croatia এবং দক্ষিণ-পশ্চিম জুড়ে Adriatic সাগরের উপকূল রয়েছে। আধিকারিকভাবে Slovenia “Republic of Slovenija” নাম পরিচিত এবং দেশের রাজধানীর নাম Ljubljana. বাংলায় উচ্চারণ লুবলিয়ানা অথবা লুবিয়ানা। Ljubljana শব্দের অর্থ “The Loved One”. Slovenia-এর সাধারণ মানুষ তাঁদের শহরগুলোকে খুবই ভালোবাসে এবং এ কারণে তাঁরা তাঁদের রাজধানীর এমনটি নামকরণ করেছে। Ljubljana দেশটির প্রধান শহর এবং যাবতীয় প্রশাসনিক ও সাংস্কৃতিক কার্যকলাপের প্রধান কেন্দ্রবিন্দু, অত্যন্ত ছোটো একটি শহর এবং পায়ে হেঁটে এক ঘণ্টার মধ্যে পুরো শহরের গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলোর স্বাদ নিতে পারবেন তবে অত্যন্ত গোছালো এবং পরিপাটি ও পরিকল্পিত একটি শহর। এছাড়াও দেশের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নগরীর মধ্যে রয়েছে Maribor, Koper এবং Nova Gorica. Slovenia European Union এর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য এবং Europe-এর বিভিন্ন দেশের সমন্বয়ে গঠিত Common Border Frame-এর যে Agreement অর্থাৎ Schengen রাষ্ট্রগুলোর তালিকায় Slovenia-এর নাম রয়েছে। Tolar এক সময় দেশটির জাতীয় মুদ্রা হিসেবে পরিচিত থাকলেও 2007-সাল থেকে দেশটির জাতীয় মুদ্রা হিসেবে EURO গৃহীত হয়। বিভিন্ন নয়নাভিরাম Lake, Alpine পর্বতমালা এবং Ski-resort এর জন্য Slovenia খুবই সুপরিচিত। Maribor-এ এ পৃথিবীর প্রাচীনতম আঙুরের বাগান রয়েছে, আঙুর থেকে Wine তৈরীতে Slovenia এর খ্যাতি জগৎ ব্যাপী এবং আপনি জেনে আশ্চর্য হবেন যে এখানকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে Wine-এর ওপর Bachelor, Masters এমনকি Ph.D. Degree-এর ব্যবস্থা রয়েছে।

1991-সালে তৎকালীন Yugoslavia ভেঙ্গে আজকের Slovenia গঠিত হয়, 1991-সালে সংঘটিত Slovenia-এর স্বাধীনতা যুদ্ধকে অনেক সময় “The Ten Day War“ বা দশ দিনের যুদ্ধও বলা হয়ে থাকে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর যা ছিলো Europe-এর ইতিহাসে প্রথম কোনও যুদ্ধ যেখানে 76 জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলও।Slovenia-কে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে সর্বপ্রথম স্বীকৃতি জানিয়েছিলো Croatia এবং অবাক করার মতো বিষয় হচ্ছে ঘটনাক্রম Croatia-কে সর্বপ্রথম স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি জানিয়েছিলো Slovenia.



Slovenia Europe-এর খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি রাষ্ট্র। মধ্য ইউরোপে অবস্থিত এ দেশটিকে অনেকে পূর্ব এবং পশ্চিম ইউরোপের (Eastern Europe এবং Western Europe) মধ্যকার সেতু হিসেবে বিবেচনা করতে চান। এর পেছনে ভৌগলিক কিছু কারণ যেমন রয়েছে ঠিক তেমনি রাজনৈতিক কারণও রয়েছে। বিগত শতাব্দীর নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত এ পুরো পৃথিবীতে দুইটি পরাশক্তির রাষ্ট্র মাথা উঁচু করে দাম্ভিকতার সাথে পুরো বিশ্বের ওপর তাঁদের প্রতিপত্তি খাঁটানোর চেষ্টা করতো; এদের একটি হচ্ছে United States of America এবং অপরটি হচ্ছে Soviet Union. Soviet Union-এর মূল আদর্শিক কাঠামো ছিলও হচ্ছে Communism বা সমাজতন্ত্র এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর United States of America-এর পাশাপাশি Soviet Union যখন নিজদেরকে পরাশক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে শুরু করে তখন থেকে রাজনৈতিক ভাবে পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে শুরু করে এবং এক সময় এ দেশগুলোতে সমাজতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা চালু করে। পূর্ব ইউরোপের মধ্যে এক মাত্র রাষ্ট্র ছিলও Greece যেখানে Soviet Union-এর কোনও প্রভাব ছিলও না এবং Soviet Union যে ধারার সমাজতান্ত্রিক কাঠামোর ওপর নির্ভরশীল ছিলও সে ধরণের সমাজতান্ত্রিক কাঠামোতে Market Economy-সহ বেশ কিছু বিষয় ছিলও Taboo-এর মতো কিন্তু Yugoslavia-এর অন্তর্ভুক্ত এ সকল দেশগুলোতে বিরাজমান সমাজতান্ত্রিক কাঠামো Soviet Union-এর মতো রক্ষণশীল ছিলও না। Yugoslavia সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র হওয়া স্বত্বেও মুক্তবাজার অর্থনীতিকে তাঁরা অগ্রাহ্য করে নি এবং United States of America, Great Britain, West Germany, Canada-এ সকল পশ্চিমা দেশগুলোর সাথে সখ্যতা ছিলও এবং Yugoslavia-এর নাগরিকদের কোনও বিধি-নিষেধ ছিলও না এ সকল পশ্চিমা দেশগুলোতে ভ্রমণের ব্যাপারে। অর্থাৎ সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র হওয়ার পরেও পশ্চিমা দেশগুলোর রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক অবস্থানের প্রতি তাঁরা যেমন Liberal ছিলও; অপরদিকে Soviet Union এবং পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোর সাথে আদর্শিকভাবে তাঁরা মিশে থাকতে পেরেছিলও। আর ভৌগলিক ভাবে Slovenia-ছিলও Yugoslavia-এর সবচেয়ে পশ্চিমের অংশ। এ কারণে Slovenia-কে অনেকে পূর্ব এবং পশ্চিম ইউরোপের (Eastern Europe এবং Western Europe) মধ্যকার সেতু হিসেবে বিবেচনা করতে চান। উল্লেখ্য যে, রাজনৈতিকভাবে Eastern Europe আর Western Europe এর মাঝে বিভাজন টানা হয় নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত Europe-এর বিশেষ করে পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোতে বিদ্যমান সমাজতান্ত্রিক কাঠামোর ওপর ভিত্তি করে। Greece Geographically পূর্ব ইউরোপে অবস্থিত হলেও Greece-কে খুব একটা Eastern European Country বলা হয় না কেননা দেশটিতে কোনও সময় Soviet Union কিংবা Communism-এর কোনও প্রভাব ছিলও না। আবার ইউরোপ মহাদেশের চারটি গুরুত্বপূর্ণ ভৌগোলিক অঞ্চল যেমনঃ Alpes, Pannonian Plate, Dinarides এবং Mediterranean সাগরের মিলন ঘটেছে এ Slovenia-তে এসে।

United States of America-এর বর্তমান President Donald Trump-এর কথা জানি; Donald Trump-এর বর্তমান স্ত্রী এবং বর্তমানে দেশটির First Lady Melania Trump-এর জন্ম Slovenia-তে। Louisa Catherine Adams-এর পর United States of America-এর 243 বছরের ইতিহাসে Melania Trump হচ্ছেন একমাত্র First Lady যার জন্ম United States of America-তে নয়। আবার প্রাক্তন Yugoslavia-এর রাষ্ট্রপ্রধান এবং কিংবদন্তি নেতা Marshall Tito-এর কথা আমরা অনেকেই শুনেছি। Marshal Tito-এর জন্মও হয়েছিলো Slovenia-তে।

এইতো গেলো মোটামুটি Slovenia-এর পরিচিতি, এখন আমি আপনাদের সামনে Slovenia এবং Hungary -এর মধ্যে তুলনামূলক একটি বর্ণনা তুলে ধরার চেষ্টা করছি।

Slovenia এর অবস্থার বর্ণনা করতে যদি যাই বিশেষ করে অর্থনৈতিক অবস্থা তাহলে বলতে হবে প্রাক্তন Communist ভুক্ত যে কোনও দেশের চাইতে সবচেয়ে বেশী এগিয়ে Slovenia. এটা আমার কথা নয়, এ রকমটি বলছে International Monetary Fund, World Bank, European Central Bank-এর মতো Organisation-গুলো, Slovenia-এর পর Estonia-এর অবস্থান, মজার ব্যাপার হচ্ছে প্রাক্তন Communist-ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম European Union এবং NATO-এর সদস্যপদ পাওয়া দেশের নাম Slovenia; এমনকি প্রাক্তন Communist-ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যেও সবার প্রথম EURO ব্যবহার করা শুরু করেছিলো এ Slovenia. এমনকি Standard of Living এবং Per Capita Income-এর দিক থেকেও দেশটি পেছনে ফেলেছে Portugal এবং Greece -এর মতো দেশকেও। আমার University-এর নাম University of Nova Gorica. তবে আমার ক্লাস হয় Ajdovščina Campus-এ এবং আমার বাসা Vipava-তে। Ajdovščina এবং Vipava বলতে গেলে দুইটি বাংলাদেশের উপজেলা শহরের মতো কিংবা গ্রামের সাথে তুলনা করলেও ভুল হবে না তারপরেও এখানে যে জিনিসটি আমি দেখেছি যে এখানে Job-এর সন্ধান পাওয়া যায়, আমি যেখানে থাকি অর্থাৎ Vipava-তে একটা ছোটো Cheese Factory আছে যাঁরা Mozzarella Cheese তৈরী করে এবং সেখানে বেশ কিছু International Student কাজ করে। এক ঘণ্টায় সাড়ে পাঁচ থেকে ছয় ইউরো বেতন দেয় এবং সেখানে আপনার ইচ্ছামতো কাজ করার সুযোগ রয়েছে। আপনি চাইলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী সময়ে কাজ করতে পারবেন এবং ইচ্ছে করলে পরীক্ষা কিংবা কোনও প্রয়োজনীয় মুহূর্তে ছুটি নিতে পারবেন, দিনে কতো ঘণ্টা কাজ করবেন এটা আপনার ইচ্ছার ওপর নির্ভর করবে। আপনি সম্পূর্ণ স্বাধীন এখানে এবং যদি আপনি Night Shift-এ কাজ করতে চান তাহলে এক ঘণ্টায় তাঁরা আপনাকে 08 EURO Salary pay-করবে। এটা Vipava কিংবা Ajdovščina-এর মতো ক্ষুদ্র এলাকার অবস্থা, Ljubljana কিংবা Maribor অথবা Nova Gorica-তে অবস্থা এর থেকে অনেক ভালো। Hungary-তে আমি একটা জিনিস লক্ষ্য করেছি আর সেটা হলো সব কিছু বাংলাদেশের মতো অর্থাৎ রাজধানী কেন্দ্রিক কিন্তু Slovenia-তে এরকম নয়। Hungarian অনেকেই বলতো প্রায় সময় “If you consider Hungary as a country then Budapest should be considered as a different country inside this Hungary ”. Slovenia-তে এরকম নয়। Hungary -তে আমি থাকতাম Pécs নামক একটা শহরে, Pécs ছোটো শহর হিসেবে তবে Istanbul-এর পর পরই UNESCO ঘোষিত এ পৃথিবীর দ্বিতীয় Cultural Capital হচ্ছে Pécs. Vipava কিংবা Ajdovščina-এর তুলনায় সন্দেহাতীতভাবে অনেক বড় কিন্তু সেখানকার সুযোগ-সুবিধা মোটেও Foreigner-দের অনুকূলে ছিলো না। আমাদের দেশের মতো উন্নয়নশীল দেশ থেকে যাঁরা বাহিরের দেশগুলোতে আসে হোক সেটা Europe-এর কোনও দেশ কিংবা United States of America, Australia, New Zealand, Canada সকলের চিন্তা থাকে কাজের দিক থেকে একটা সুবিধা পাওয়া। Hungary এ দিক থেকে খুবই খারাপ একটি Option. Hungary -এর Economy খুবই ভঙ্গুর এবং সত্যি এখানে কাজ পাওয়া অনেক কঠিন বিশেষ করে Budapest এর বাহিরে, আমাদের Pécs থেকে প্রায় ষাট কিলোমিটারের মতো দূরে Kaposvár নামে ছোটো একটি শহর ছিলো মফস্বল ধাঁচের, সবাই সেখানে যেতো কাজ করতে বিশেষ করে International Student যাঁরা। কারণ Kaposvár Industrial Area. তবে সেখানকার কাজের পরিবেশ খুবই অমানবিক এবং Salary যা দিতো তা একেবারে অপ্রতুল। এক ঘণ্টা কাজ করলে বেতন দিতো 800 Hungarian Forints-এর মতো যা 02.5 EURO  এর কাছাকাছি এবং সেখানে System বলে কোনও কিছু ছিলো না। স্বাধীনভাবে কাজ করা তো দূরের কথা যখন ইচ্ছা কর্তৃপক্ষ আপনাকে ডাকবে, আপনি গিয়ে কাজ করে আসবেন। Exam. এর ব্যাপারেও তাঁরা কোনও ছাড় দিতে চাইতো না। Budapest-এ Job পাওয়া যায় তবে Salary এতো ভালো না যদি আমরা আশেপাশের দেশগুলোর দিকে তাকাই Serbia ছাড়া।

Slovenia -এর সবচেয়ে চমৎকার দিক হচ্ছে এখানকার বেশীর ভাগ মানুষ English বলতে পারে, এমনকি অনেক বয়স্ক লোককেও আপনি খুঁজে পাবেন যাঁরা English-এ পারদর্শী, Vipava কিংবা Ajdovščina-এর মতো জায়গায় থাকার পরেও আমার এজন্য সমস্যা হচ্ছে না। EF EPI Index-অনুসারে Slovenia -এর অবস্থান বর্তমানে সারা পৃথিবীতে নবম। EF EPI Index-অনুসারে Slovenia-এর বর্তমান Score 64.84 যা এক সময়কার Communist-ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে English Proficiency-এর দিক থেকে সবার শীর্ষে। তাই স্থানীয় ভাষা Slovenian না জানলেও আপনার এখানে তেমন সমস্যা হবে না। Hungary-তে এটা একটা বড় সমস্যা ছিলো কেনন. সেখানকার খুব বেশী মানুষ English বলতে পারে না, এমনকি University এর অনেক Student-এর সাথে আমার পরিচয় হয়েছে যাঁরা English বলতে পারে না। শুধু English-এর দক্ষতা দিয়েও আপনি এখানে চাকুরীর ব্যবস্থা করতে পারবেন, তবে বড় সমস্যা যেটা সাম্প্রতিককালে দেখা যাচ্ছে Macedonia, Serbia, Bosnia and Herzegovina এর মতো কিছু দেশ থেকে এখানে প্রচুর মানুষ আসছে এবং এগুলো যেহেতু প্রাক্তন Yugoslavia-এর অন্তর্ভুক্ত রাষ্ট্র তাই এ সকল দেশের সাধারণ মানুষের ভাষার সাথে Slovenia -এর সাধারণ মানুষের ভাষার বেশ সাদৃশ্য রয়েছে। Serbia, Macedonia, Bosnia and Herzegovina, Kosovo, Albania-এগুলো ইউরোপের মধ্যে সবচেয়ে নীচের দিকের অর্থনৈতিক ব্যবস্থাসম্পন্ন রাষ্ট্র এবং গড়পত্তা এ সকল দেশে একজন সাধারণ মানুষের Monthly Salary 200 EURO -এর মতো। অথচ Slovenia-তে সহজে এর থেকে তিন-চারগুন আয় করা যায়। Macedonia, Serbia, Bosnia and Herzegovina, Kosovo, Albania -এ সকল দেশ থেকে যাঁরা Slovenia-তে পড়তে আসেন তাঁদেরকে Tuition Fees-দিতে হয় না এবং দেখা যায় যে এ সকল দেশের অনেক Student এখানে আসার পর Semester Registration করে আর University-এর সাথে যোগাযোগ রাখে না, সারা দিন্ কাজ করে এবং আমাদের বাঙালি কিংবা উপমহাদেশের মানুষের মতো এদেরও কোনও কোনও ক্ষেত্রে একই ধাঁচের চিন্তা-ধারা থাকে। Slovenia এর সাথে এ সকল দেশের সাধারণ মানুষের ভাষায় অনেকটা মিল থাকায় এবং Slovenia এর সরকারের সাথে এ সকল দেশের সরকারের কিছু Agreement রয়েছে, যেমনঃ Macedonia, Serbia, Bosnia and Herzegovina, Kosovo, Albania-এ সকল দেশ থেকে কোনও শিক্ষার্থী যদি এখানে এসে কাজ করতে চায় তাহলে তাঁকে কোনও ধরণের Tax দিতে হয় না যেখানে আমাদেরকে 22% Tax দিতে হয় Salary-এর ওপর ভিত্তি করে। আবার তাঁদের এজন্য এ দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিনামূল্যে পড়াশুনা করার সুযোগ রয়েছে। এ ধরণের কিছু সুবিধার জন্য তাঁরা Slovenia -কে স্বর্গ হিসেবে ধরে নেয় এবং বর্তমানে এ সকল দেশের কিছু Student-দের কিছু আচরণের কারণে কারণে অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যাঁরা আসলে এখন আর Foreign Student-দেরকে কাজে রাখতে চায় না। এজন্য আমাদের সকলকে খেসারত দিতে হচ্ছে এ সকল দেশ থেকে আসা কিছু মানুষদের জন্য।



Slovenia-এর System অনেকটা Flexible. এখানে সব কিছু বলতে গেলে হাতের মুঠোয়, যেমনঃ আপনি Temporary Residence Permit-এর জন্য Apply-করবেন আপনাকে Bank Statement-এর কোনও ঝামেলা পোহাতে হবে না। University-এর কাছ থেকে একটা Document নিলেই হবে যে আপনি সেখানে লেখাপড়া করছেন, এরপর সেটা স্থানীয় Immigration Office-এ জমা দিলেই আপনার Residence Permit Ready সাত থেকে দশ দিনের মধ্যে। তবে প্রথমবার যখন Residence Permit-এর জন্য Apply-করবেন তখন আপনাকে আপনার পরিবারের কাছ থেকে একশত টাকার Stamp-এ Affidavit-করে নিতে হবে, এটা অত্যন্ত Simple Format-এর একটি জিনিস যেখানে লেখা থাকবে যে আপনার বাবা কিংবা মা আপনার পড়াশুনা এবং Slovenia -তে থাকার জন্য যাবতীয় খরচ বহনের দায়ভার গ্রহণ করছেন। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট এবং Birth Certificate এর কপি যা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়িত করে Vienna-তে অবস্থিত Bangladesh -এর Embassy থেকে Attested করাতে হবে এবং সবশেষ Slovenia এর Ministry of Foreign Affairs-এর থেকে Legalisation করাতে হবে। এটা শুধু প্রথম যখন Temporary Residence Permit-এর জন্য আবেদন করবেন ঠিক তখন, Temporary Residence Permit-হয়ে গেলে আপনি সেটার একসেট ফটোকপি আপনার House-owner কিংবা আপনার Hostel Authority-এর কাছে জমা দিলে তিনি আপনাকে এখানকার System-এ Registration করে দিবেন যে আপনি এ নির্দিষ্ট স্থানে বসবাস করছেন। Bank Statement-এর ঝামেলা নেই, Hungary তে ছিলো সম্পূর্ণ উল্টো। Pécs-এর মতো ছোটো শহরে যখন যেতাম Temporary Residence Permit Renew করার জন্য পুরো একটা দিন্ নষ্ট হয়ে যেতো, Bank Statement এর ঝামেলা ছিলো। নিজের নামে Bank Account Open করে সেখানে 8,000 EURO দেখানো; আমার প্রথমবার Temporary Residence Permit-এর Application দুই মাসের মতো Hang হয়েছিলো এ একটা কারণে কেননা আমার বয়স আঠারো বছরের বেশী হয়ে যাওয়ায় আমার বাবার Account-এর Statement তাঁরা Accept-করছিলো না এবং সে সময় দেশে গিয়ে নতুন করে Bank Statement Open-করাও সম্ভব ছিলো না নিজের নামে। আবার Accommodation-এর ব্যাপারে সেখানে নিয়ম ছিলো তাঁরা আপনাকে একটি Card-দিবে যেটা আপনাকে পূরণ করে House-owner থেকে কিংবা Hostel-এর Authority-এর থেকে signature+stamp করে নিতে হবে, এরপর আবার Hostel হলে Contract আর Flat বাসা হলে বাড়ি ভাড়ার চুক্তি পত্র জমা দিতে হবে। যা সত্যিকার অর্থে বিব্রতকর একটি বিষয়। আমার Hostel ছিলো Boszorkány útca-তে কিন্তু Hostel-এর অফিস ছিলো Szánto Kollégium-এ, প্রায় দেড় কিলোমিটার দূর এবং একটা Signature আর একটা Stamp-এর জন্য আরও একটা দিন্ নষ্ট। Slovenia -তে এ ধরণের কোনো জটিলতা নেই, সব কিছু Flexible. আপনি শুধু System এর দিকে পা বাড়াবেন, কর্তৃপক্ষ সব করে দিবে।

Hungary-তে Racism এর সমস্যা প্রচুর, আর Hungarian-রা জাতিগতভাবে অনেক কর্কশ। তাঁরা এখনও নিজেদেরকে শ্রেষ্ঠ জাতি হিসেবে বিবেচনা করে। আশেপাশের দেশগুলো যেমনঃ Romania, Serbia, Slovakia-এদের সাথে Hungary-এর সম্পর্ক শীতল অনেক। 1918 সালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর Austro-Hungarian Empire-এর পতন হলে Treaty of Trianon-এর চুক্তি অনুযায়ী Hungary বাধ্য হয় তার তিন ভাগের দুই ভাগ ভূমিকে প্রতিবেশী দেশগুলোর কাছে সমর্পণ করতে এবং এ চুক্তিটি অমূলক ছিলো না। Vlad the Impaler যিনি টেলিভিশন জগতে Dracula নামে পরিচিত তাঁর জন্ম Sighișoara-তে যেটি বর্তমান Romania-এর Wallachia-নামক অংশের অন্তর্গত। Austro-Hungarian Empire-এর সময় এ অঞ্চলটির নাম ছিলো Transylvania যা Treaty of Trianon-এর চুক্তি অনুযায়ী Romania-এর হাতে সমর্পণ করা হয়। Vlad the Impaler Romania -এর Eastern Orthodox একজন রাজা, কোনো দিন কখনও তিনি Hungary-এর কেউ ছিলেন না। Hungarian-রা হচ্ছে Catholic আর Romanian-রা Orthodox. তারপরেও Hungary এ Treaty of Trianon-কে ভুলতে পারে নি এবং এখনও তাঁরা দাবি করে যে এ Transylvania তাঁদের অংশ যা সত্যি অযৌক্তিক একটি দাবি, বরং Hungary এক সময় অন্যায়ভাবে Serbia, Romania, Slovakia, Croatia-এর থেকে বিরাট একটি অংশের ভূমি দখল করে “The Greater Hungary” তৈরী করেছিলো ফ্যাসিবাদী কায়দায়, Treaty of Union-এর অবসান ঘটিয়েছিলো। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় Hungary-এর ভূমিকা ছিলো চরম প্রশ্নের মুখে। এগুলো অতীত ইতিহাস। আর Hungarian-রা ইউরোপের অন্যান্য জাতিগোষ্ঠী থেকে আলাদা, Hungary-এর উত্তরপূর্বের দেশ Austria, Austria-এর ভাষা Deutsche/German. Hungary-এর পূর্বের দেশ Romania এবং Romanian Latin ভাষাগোষ্ঠীর অন্তর্গত একটি Romance Language যা অনেকটা Italian/French এর মতো। অন্যান্য প্রতিবেশী যে সকল রাষ্ট্র রয়েছে যেমনঃ Serbia, Ukraine, Slovenia, Slovakia, Croatia এরা সবাই Slavic. Hungarian ভাষা Uralic ভাষাগোষ্ঠীর অন্তর্গত ভাষা বলে অনেকে দাবি করেন এবং এ হিসেবে Estonian কিংবা Finland এর ভাষার সাথে এ ভাষার মিল পাওয়া যাওয়ার কথা তবে বাস্তবে এমনটি নয়। Hungarian-দের পূর্ব পুরুষ এসেছে “Hun” নামক একটি জাতিগোষ্ঠীর থেকে। “Hun”-নামক মঙ্গোলয়েড জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের বসবাস ছিলো Uzbekistan কিংবা Kazakhstan এর কোনও এক পাহাড়ী অঞ্চলে যাঁরা জাতি হিসেবে খুবই দুধর্ষ ছিলো। অত্যাচারী ছিলো, Hun-দের ভাষা ছিলো আদি Turkish ভাষার মতো এবং এ কারণে এখনও Uzbekistan, Kazakhstan কিংবা Turkish ভাষার সাথে Hungarian-দের ভাষার মিল খুঁজে পাওয়া যায়। Hungarian Grammar এর অনেক অংশ পুরোপুরি এ সকল ভাষার সাথে মিলে যায়; Hungary-এর Founding Father “Attila”. “Attila” এখনও Uzbekistan কিংবা Kazakhstan এর একটি জনপ্রিয় নাম। Hungarian-রা এ দাবি স্বীকার করবে না কখনও, Hungarian-রা দেখতেও ইউরোপের অন্যান্য জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের থেকে আলাদা। এ কারণে Hungary-তে Racism-এর সমস্যা থাকাটা স্বাভাবিক, এরপর দুই বিশ্বযুদ্ধের ভরাডুবি আর দীর্ঘ দিন্ Soviet Union-এর Satellite রাষ্ট্র থাকার কারণে বাহিরের পৃথিবীর থেকে তাঁরা বিচ্ছিন্ন ছিলো। Soviet Union-এর সময় তাঁদেরকে বাহিরের পশ্চিমা দেশগুলোতে যেমনঃ West Germany, France, Great Britain, United States of America এ সকল দেশে যাতায়াত করা নিষিদ্ধ ছিলো। English চর্চার প্রতিও নিষেধাক্কা ছিলো, কেবলমাত্র Diplomat যাঁরা এবং যাঁরা রাজনৈতিক নেতা তাঁরা কেবল পশ্চিমা দেশগুলোতে যেতে পারতেন এবং সে জন্য তাঁদেরকে আলাদা পাসপোর্ট Issue-করা হতো, দুই ধরণের পাসপোর্ট থাকতো একজনের কাছে। লাল রঙের পাসপোর্ট যেটি কেবল Communist-ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে যাতায়াতের জন্য ব্যবহার করা যেতো এবং নীল পাসপোর্ট ছিলো Communist-ভুক্ত নয় এমন কোনও দেশে যাতায়াতের জন্য; সাধারণ মানুষের এ নীল পাসপোর্ট ব্যবহারের অনুমতি ছিলো না। Marshal Tito-এর দূরদর্শীতার কারণে Communist-ভুক্ত রাষ্ট্র হওয়া সত্ত্বেও Stalin-এর প্রভাব থেকে মুক্ত রাখা সম্ভব হয়েছিলো Slovenia, Serbia, Croatia, Macedonia, Bosnia and Herzegovina, Montenegro সহ তৎকালীন Yugoslav-দেশগুলোকে। তাই Communist রাষ্ট্র হওয়া সত্ত্বেও Yugoslavia-এর মানুষের সাথে পৃথিবীর সকল প্রান্তের মানুষের যোগাযোগ ছিলো, যে কেউ ইচ্ছে করলে English শিখতে পারতো। এ কারণে Slovenia-এর সাধারণ মানুষ Hungary-এর সাধারণ মানুষের তুলনায় অনেক বেশী উদার মনের, Friendly এবং বাহিরের পৃথিবী সম্পর্কে ধারণা রাখেন। Hungary-এর অনেক মানুষের সাথে আমি কথা বলেছি যাঁরা বাংলাদেশের সম্পর্কে জানেন না কিছুই কিন্তু Slovenia-এর ক্ষেত্রে এমনটি নয়। এর কারণও আছে। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং যুদ্ধোত্তর পরবর্তী বাংলাদেশ গঠনে Marshal Tito-এর বিশেষ অবদান রয়েছে।

Slovenian-রা সে অর্থে Racist-না। Hungary-তে আমার মনে আছে University-এর কোনও Administrative Staff-কে কিংবা Teacher-কে সাত থেকে আটবার E-mail করেও খুঁজে পাওয়া যেতো না। Classroom এর বাহিরে কোনও শিক্ষককে খুঁজে পাওয়াটা ছিলো ভাগ্যের বিষয়। Hungary-তে আমার প্রথম দুই সেমিস্টারের Result-দিয়ে আমি apply-করেছিলাম খণ্ডকালীন Teaching Assistant-এর জন্য এবং আমার Result-ছিলো সবচেয়ে ভালো কিন্তু আমাকে এক Professor সরাসরি জানায় যে ” Sorry !!! We can not recruit you although you have the most excellent academic background here. We do not appoint anyone at our university who has not been born as Hungarian.” University of Pécs-এ আমার Department-এ একজন Professor-এর কাছ থেকে মাঝে-মধ্যে একটা জিনিস আশা করা বৃথা ছিলো যে ক্লাসরুমের বাহিরে তিনি কাউকে সময় দিবেন। আমাদের এক Teacher ছিলো যিনি “Wave and Optics” এবং “Electricity and Magnetism” এ দুইটি বিষয়ে ক্লাস নিতেন। আমি এ দুইটি Subject-এ দূর্বল ছিলাম, Teacher-এর কাছে সাহায্য চাইলে তিনি উত্তর দেন্’ “I have a lot of things to do. So, I do not have time to help you”. অনেক Teacher জানেও না তাঁর ক্লাসে Student কে কে। Hungary-তে আমার এক Madam ছিলেন; তিনি যে রকম Racist সে রকম বদমেজাজি। আমাকে তিনি অকারণে একবার Fail-করিয়ে দিয়েছিলেন এবং আমার আম্মা সে সময় অসুস্থ্য থাকায় আমার জরুরীভাবে দেশে যাওয়ার প্রয়োজন ছিলো। Madam আমার আম্মার কথা শুনে উত্তর দেয় যে “OKAY!!! Be a nurse and go for taking care of your mother. Do not come to the Pécs for study.” সারা বছর ক্লাসে কিছুই পড়াতেন না তিনি এবং কোনও প্রশ্ন করলে তিনি রাগ করতেন। Slovenia -তে আমাকে Teacher-রা সব সময় বলে যে তুমি আর যা-ই পাওয়া না কেনও অন্ততঃ পক্ষে তোমার মনে আঘাত লাগে এরকম কিছু আমরা কোনও হতে দিবো না। Hungary-তে Native Hungarian আর International Student-দের মধ্যে বৈষম্য ছিলো প্রচুর, আমাদের ক্লাসে কোনও Hungarian Student ছিলো না। অনেক Course-এর ক্ষেত্রে দেখা যেতো International Student-দের জন্য এক ধরণের Course Curriculum, Hungarian Student-দের জন্য সম্পূর্ণ আলাদা Course Curriculum. এক Teacher সরাসরি ক্লাসে বলেছিলও যে আমরা যাঁরা International Student University of Pécs-এ পড়াশুনা করছি আমরা কেউ আর এ দেশে থাকবো না তাই কোনও রকমে Certificate আমাদের হাতে তুলে দিলে তাঁদের দায় মুক্ত। Dormitory-তে Hungarian এবং International Student-দের জন্য আলাদা Partition ছিলো, আট তলা Building-এর একটা তলা ছিলো International Student-দের জন্য, Kitchen-এ রান্না করা ছিলো দুরূহ ব্যাপার। Hungarian-রা বাকী সাত তলা জুড়ে থাকতো এবং আমাদেরকে সহজে তাঁদের Kitchen ব্যবহার করতে দিতো না। একবার এক ছেলে তাঁদের Kitchen ব্যবহার করে, Hostel Receptionist আমাদের সবাইকে এজন্য Punishment দেয় এবং সরাসরি বলে বসে আমরা Asian-রা না কী নোংরা।



Slovenia -তে এগুলো কল্পনা করা যায় না, আমাদের ক্লাসে আমি এবং আমার এক Classmate Turkey-এর এ দুইজন বাদে সকলে Slovenian. Dormitory-তে এক সাথে থাকা যায় এবং একই Kitchen ব্যবহার করা যায়, আমাদের Hostel-এর Receptionist খুবই উদার মনের মানুষ। আমি এখানে দেখেছি অনেকেই ভালো Result-করে আমাদের University-তে চাকুর পেয়ে গিয়েছে; কে Slovenia তে জন্ম নিলো কিংবা কে বাহিরের থেকে আসলো এ নিয়ে কোনও ভেদাভেদ নেই তাঁদের মধ্যে।
দোকানে গিয়েছি Scan আর Photocopy করতে, এক বয়স্ক মহিলা আমাকে দেখে বলে তুমি বাহিরের থেকে এসেছো এখানে পড়াশুনা করতে, তাই তোমার থেকে টাকা-নিবো না। বড় কোনও দোকানে গিয়েছি জিনিস কিনতে, টাকা নিতে ভুলে গিয়েছি। আমাকে বলা হলো পরে এসে দিয়ে যেতে অথচ সেটাই ছিলো প্রথমবার সে দোকানে যাত্রা। Ministry-তে গিয়েছি Birth Certificate আর Police Clearance Certificate Legalisation-করতে, কিন্তু সঠিক Building চিনতে ভুল করেছি। এক অফিসার আমাকে ডেকে নিয়ে বলে তাঁর সাথে যাওয়ার জন্য এবং Ministry এর একজন High Official আমাকে ডেকে নিয়ে আমাকে সঠিক জায়গায় পৌঁছে দিবে তাঁর কাজ কিছু সময়ের জন্য বিরত রেখে এটা আমার কল্পনার বাহিরে ছিলো। Bank-এ গিয়েছি, সেখানকার অফিসার আমাকে নিজ হাতে সমস্ত Procedure Complete-করে দিয়েছে। আমার TAX File ছিলও না, আমাকে এজন্য Apply-করতে হয়ও নি। তিনি নিজের দায়িত্বে আমার জন্য Tax File Open-করে এনেছেন Ministry of Finance-এর Office-থেকে। যেদিনকে প্রথম Campus-এ যাই আমাদের Secretary নিজের দায়িত্ব নিয়ে আমাকে পুরো শহরের সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে, আমাকে Local Immigration Office-এ নিয়ে গিয়েছে এবং আমার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমার পাশে ছিলেন। এখানকার যে কোনও Office এরকম, কোনও কিছু চাইতে হবে না সবাই আপন মনে আপনাকে সাহায্য করবে।

অর্থনৈতিকভাবে Hungary এখন তলাবিহীন ঝুড়ি, European Union-এর দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে বলতে গেলে Hungary  আর Bulgaria-এর Economy. 2015-সালে 01 EURO এর বিনিময়ে 192 Hungarian Forints পাওয়া যেতো, এখন তা প্রায় 325 এর মতো। প্রাকৃতিক সম্পদ কিংবা বড় Industry বলে কিছুই নেই, যে কোনও Product-এর ওপর 28% TAX. একটা জিনিসের দাম Austria কিংবা Italy-তে যতো Hungary -তেও একই দাম। অথচ Austria কিংবা Italy-তে যে কোনো কাজে Hungary -এর থেকে At least Double Salary. আয়ের সাথে ব্যয়ের সামঞ্জস্য নেই, বিগত কয়েক বছর ধরে Hungary-এর থেকে অনেকে বিশেষ করে Young Generation-এর অনেকে চলে যাচ্ছে Austria, Germany, Sweden, Denmark-এ সকল দেশে, University-গুলো পর্যাপ্ত Student পাচ্ছে না। এ কারণে Hungary Stipendium Scholarship চালু করেছে যদিও আমার দেখা সবচেয়ে ****** Scholarship programme এটা। Stipendium Scholarship-এর জন্য Nomination পেতে গেলে ভালো Student হওয়ার দরকার নেই, শুধু তাঁরা দুই দেশের সরকারের মধ্যাকার Agreement দেখবে। বাংলাদেশ থেকে Fake IELTS Certificate দিয়েও অনেকে এ Scholarship এর জন্য Nomination পেয়েছে। আর Hungary-তে এখন Education Business. Qualified Student হলে Hungary-তে আসার জন্য কাউকে আমি Recommend করবো না। এখানে Certificate হবে আপনার কিন্তু কিছু শিখতে পারবেন না। University of Pécs-এ এক বছরের Tuition Fees 5,000 EURO, BME-তে 6,400 EURO, ELTE-তে 6,000 EURO, University of Debrecen-এ 5,000 EURO. অথচ Charles University of Prague (যেটি QS Ranking-এর পৃথিবীর প্রথম চারশো বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটি এবং Czech Republic -এর Number One University) University of Bucharest, University of Ljubljana, University of Maribor, Adam Mickiewicz University, Comenius University of Bratislava-এ সকল প্রত্যেকটি University Hungary -এর অনেক University থেকে Ranking-এ অনেক এগিয়ে এবং অনেক সময় Hungary এর একটা University-এর এক সেমিস্টারের টাকায় এ সকল University-তে এক বছর পড়া যায়। কিছু কিছু University আছে Hungary-তে জারা VISA Refusal হওয়ার পর Tuition Fees এর সম্পূর্ণ টাকা Refund না করে একটা নির্দিষ্ট Percentage কেঁটে রাখে যা সত্যি দুর্ভাগ্যজনক। Austria, Germany, Norway এমনকি Italy আর France-এর অনেক University-তে অনেক সময় Free পড়া যায়। লেখাপড়ার মান Hungary-তে একেবারে নিম্ন মানের বলতে গেলে, আমার Roommate ছিলো Pakistan-এর জীবনে কোনও দিন্ ক্লাসে যেতও না। Engineering Student এবং Stipendium Hungaricum Scholarship Holder. Integration পারতো না, একবার পরীক্ষার আগে আমাকে বলে তাঁর হয়ে Proxy-দেওয়ার জন্য।অনেক Teacher ঠিক মতো English বলতে পারে না, কিছু কিছু Subject-এর পরীক্ষা শুধু Presentation. আমার University of Pécs-এর প্রথম Semester Final পরীক্ষার প্রথম Subject-এর প্রথম প্রশ্ন:-

“i)Solve the equation: sinx+cosx=1;

ii) The total area of a rectangle is 120 square-metre. The parameter of the rectangle is 22 metre. Find the length and the width of the rectangle.”

Medical কিছু Subject ছাড়া আমি মনে করি না যে কারও এ রকম দেশে টাকা খরচ করতে আসা উচিৎ, অনেক Subject-আছে যেখানে আপনি যদি ফেল করেন আপনাকে আরও দুইবার improvement-এর সুযোগ দেওয়া হবে এবং আমি দেখেছি যে কিছু কিছু Teacher Improvement এর পরীক্ষার সময় এসে মূল পরীক্ষার প্রশ্নের সাথে কোনও পরিবর্তন আসে না। অনেক Teacher আমাদের দেশের Coaching Centre-এর মতো আয়োজন নিয়ে বসে, একটা Publication করতে গেলেও নিজের টাকায় করতে হয় অনেক সময়। Hungarian-রা টাকা নিতে জানে কিন্তু বিনিময়ে কাউকে কিছু দিতে জানে না। BME, University of Debrecen, University of Pécs, ELTE-এগুলো যতোটা না University তাঁর থেকে বেশী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান International Student-দের জন্য। Times Higher Education-এর জরিপ অনুযায়ী Hungary সবচেয়ে Expensive Country Eastern Europe-এর দেশগুলোর মধ্যে International Student-দের জন্য আর Debrecen সবচেয়ে Expensive City. এতো অস্পৃশ্যতার পরেও Hungarian-দের তাঁদের দেশ নিয়ে গর্বের সীমা নেই, আমাদের এক Teacher-তো সরাসরি বলতেন যে University of Pécs ইউরোপের মধ্যে সবচেয়ে অগ্রসর University বিশেষ করে Laser-এর গবেষণায় এবং ইউরোপ মহাদেশের কোথাও না কী এ রকম গবেষণাগার নেই। Europe-এর মহাদেশের দেশ হওয়া স্বত্বেও Hungary-এর জনগোষ্ঠীর একটা বড় অংশ এখনও কুয়োর ব্যাঙের মতো।



Hungary -কে বলা চলে বাংলাদেশের EU Version. অর্থাৎ বাংলাদেশ যদি EU এর অন্তর্ভুক্ত কোনও দেশ হতো তাহলে বাংলাদেশের যে রকম চেহারা হতো Hungary এর চেহারা ঠিক একই রকম। Hungary-এর Prime-Minister Orbán Viktor একজন Dictator. 2010-সাল থেকে তিনি ক্ষমতায় এবং তিনি সংবিধানকে এমনভাবে পরিবর্তন করেছেন যে খুব নিকট ভবিষ্যতে সেটার পরিবর্তন হওয়াটা কঠিন, Hungary European Union-এর একমাত্র দেশ যেখানে কাঁটাতারের বেড়া রয়েছে, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে আসা শরণার্থীদের সাথে তাঁরা কী রকম ব্যবহার করেছে সেটা কারও ভুলে যাওয়ার কথা না। গত Parliamentary Election এর সময় Hungary-এর অনেক জায়গায় মানুষ ভোট দিতে যাই নি, বিশেষ করে Younger Generation এর বেশীর ভাগ মানুষ ভোট দান থেকে বিরত থেকেছিলো। তারপরেও অনেক জায়গায় 102% Vote Cast-হয়েছে, Transparency International-এর জরিপে Hungary European Union-এর সদস্যভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে দুর্নীতিপরায়ণ রাষ্ট্র। Orbán Viktor নিজের শাসনকে বৈধতা দেওয়ার জন্য “Mini Democracy“ নামে এক ধরণের Concept চালু করেছেন যেখানে তিনি নিজে বলেছেন যে অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত রাষ্ট্রগুলোর ক্ষেত্রে গণতন্ত্রের থেকে অর্থনৈতিক উন্নয়ন বেশী জরুরী। Bureaucracy Hungary-তে খুবই সাধারণ, আমি Tuition Fees Wavier এর জন্য Apply-করেছিলাম, সেটা প্রথমে Department থেকে পাশ হবে, এরপর Registrar Office হয়ে Dean-এর কাছে যাবে। Dean Letter Issue-করবে এবং সেটা International Office-এ যাবে, সেখান থেকে University-এর Treasurer-এর হাতে এ Letter Approve-হবে এবং আবার Dean Sign-করবে। তারপর আমার Online System Show-করবে যে আমি Wavier পাচ্ছি এবং আমার ক্ষেত্রে এ পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে সময় লেগেছিলো তিন মাস। আবার Hungary -এর অনেক জায়গায় উন্নয়নের নামে আমি দীর্ঘসূত্রিতা এবং জনভোগান্তি দেখেছি। বাংলাদেশ থেকে বাহিরে মানুষ আসে উন্নত জীবনের আশায় কিন্তু সেখানে এসেও যদি এসব দেখতে হয় তখন আপনি কী বলবেন?

আল্লাহ্ তা’আলার কাছে হাজারো শোকর যে আমি শেষ পর্যন্ত এ নরক থেকে বের হয়ে অন্য একটা জায়গায় এসেছি। হয়তো Slovenia, Germany, Austria, Netherlands, Denmark, Sweden, Norway, Finland-এর মতো এ রকম পর্যায়ের দেশ নয় কিন্তু আমি ভালো আছি। আমার এখনকার University যেটা সেটা স্থাপিত হয় 1995 সালে এবং QS WORLD UNIVERSITY RANKINGS কিংবা Times Higher Education-এর জরিপে পঞ্চাশের কম বয়স্ক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তালিকায় এর অবস্থান উপরের দিকে এবং World Ranking-এ পৃথিবীর সেরা সাতশো বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে এ University-এর নাম রয়েছে; এখানকার Teacher এবং Staff-রা খুবই আন্তরিক, লেখাপড়া শেষে চাইলে University-তে চাকুরির সুযোগ রয়েছে। Slovenia -তে Income এর সুযোগ রয়েছে এবং জীবনযাত্রার ব্যয়ও অনেক কম। আমার Subject-এ এক বছরের Tuition Fees 3,000 EURO . সব কিছু এখানে Flexible. Student-দের জন্য “M-Service” নামক একটা Agency রয়েছে যাঁরা Part-time Job-এর ব্যাপারে সাহায্য করে এবং চাইলে University-এর মাধ্যমে অনেক বড় বড় প্রতিষ্ঠানে চাকুরীর ব্যবস্থা করা যায়। Subsidised Meal-এর ব্যবস্থা রয়েছে এবং একজন Student-কে Support দেওয়ার জন্য যথেষ্ট ব্যবস্থা এখানে রয়েছে। বাংলাদেশ থেকে যদি কেউ পড়াশুনার জন্য Slovenia -তে আসতে চায় বিশেষ করে মধ্যবিত্ত ঘরের কোনও Student তাঁদের জন্য Slovenia  বিশেষ করে University of Nova Gorica একটা দারুণ Option. Career-এরও ভালো সুযোগ পাবেন এখানে আর সেই সাথে Permanent Residence-তো আছে। এখানকার Permanent Residence System Finland-এর মতো, যদি আপনি Job পান এবং সেটা যদি Full-time Job হয় তাহলে পাঁচ বছরের মধ্যে Permanent Residence হতে পারবেন।

বাংলাদেশের অনেক শিক্ষার্থীদের জন্য Slovenia  হতে পারে স্বর্গ, আমি এক সময়ে IUB-এর Student ছিলাম; আমাদের Independent University, Bangladesh এর Acting Vice-Chancellor যিনি এ মুহূর্তে তিনিও একজন Slovenian. Professor Dr. Milan Pagan.

যদি কেউ সত্যিকার অর্থে এখানে পড়াশুনার জন্য আসতে চান নিঃসঙ্কোচে যোগাযোগ করতে পারেন আমার সাথে, এর আগে অনেকে দেখেছি আমার Post-এর নীচে Comment-করে Work-Permit এর ব্যাপারে। এরকম কেউ যাতে না করে সেজন্য সবাইকে অনুরোধ জানাচ্ছি। আর পড়াশুনার বাহিরে কেউ কোনও ধরণের Offensive Comment-করবেন না হালকা কোনও প্রশ্ন করবেন না।

আজ তাহলে এ পর্যন্ত, সকলে ভালো থাকেন, সুস্থ্য থাকেন!!!
আল্লাহ্ হাফেজ!!!

লেখকঃ রাকিব হাসান রাফি

শিক্ষার্থী, স্লোভেনিয়া



ফেসবুক মন্তব্য
Print Friendly, PDF & Email
 
শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *