উচ্চশিক্ষায় Romania এবং Romanian Government Scholarship!!!

Romania-তে উচ্চশিক্ষা নিয়ে এর আগে আরও একটি Post লিখেছিলাম, হয় তো বা এখনও খোঁজ করলে এ Post-টি খুঁজে পাওয়া যাবে।

Romania পুরো Europe মহাদেশ তো বটেই এ পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে Underrated দেশগুলোর মধ্যে একটি। এ কথাটি আমার নয়, এ কথাটি বলেছেন Prince of Wales খ্যাত Charles থেকে আরম্ভ করে Drew Binsky এর মতো বিখ্যাত অনেক Traveller-ই। এর আগেও লিখেছি Romania সম্পর্কে, এ দেশটির একটি চিত্র আপনাদের সামনে তুলে ধরেছি। আজকেও আবার সেই পুরাতন Chapter-এ আরও একবার ফিরে যাওয়া যা-ক।

অনেকের কাছে Romania Country of Dracula or Vampire-এর দেশ নামেও পরিচিত এবং এটি এমন একটি দেশ যেখানে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় আইন করে কালো জাদু বা Black Magic-কে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। আর এখানকার নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর সে দেশের মানুষের উদ্যমতায় “Charles- the Prince of Wales” এতোটাই মুগ্ধ হন যে তিনি মাঝে-মধ্যেই এ দেশে বেড়াতে আসেন। Europe-এর অনেকের কাছে Romania Gypsy অর্থাৎ যাযাবরের দেশ নামেও পরিচিত। তবে আসলে এ ধারণাটি সম্পূর্ণভাবে ভুল। আসলে Europe-এর অন্যতম বৃহত্তর ভ্রাম্যমাণ জনগোষ্ঠী যাঁদেরকে নৃতাত্ত্বিকভাবে Roma-নামে অভিহিত করা হয় তাঁদের সাথে Romanian-দেরকে অনেকে এক করে ফেলে দুইটি নামই কাছাকাছি হওয়ার কারণে। Europe-এর মধ্যে Most Cultural Country-হিসেবেও Romania-কে অনেকে স্বীকৃতি দিয়ে থাকেন। “Vlad the Impaler” যাকে ঘিরে Dracula সিরিজের উপন্যাস রচিত হয়েছে সে Vlad the Impaler ছিলেন Sighișoara-তে জন্ম নেওয়া একজন Eastern Orthodox রাজা যিনি এক সময় Wallachia শাসন করেছিলেন এবং Romania-এর ইতিহাসে তিনি একজন জাতীয় বীর। Brașov থেকে প্রায় পঁচিশ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে তাঁর স্মরণে একটি Castle রয়েছে যা “Bran Castle” বা Dracula-এর Castle নামেও পরিচিত।
“Romania“ শব্দটি এসেছে Latin Word “Romanus”-থেকে যার অর্থ “Citizens of Rome”. 1877-সালে Romania Ottoman-শাসকদের হাত থেকে মুক্ত হয়ে 1881-সালে “Kingdom of Romania”-প্রতিষ্ঠিত হয়। 2017-সালে করা এক জরিপ অনুযায়ী Romania -এর জনসংখ্যা 19.71 million-এর কাছাকাছি যেখানে এ জনসংখ্যার শতকরা একানব্বই ভাগের মতো মানুষ Christian (মূলতঃ Orthodox Christian)-ধর্মে বিশ্বাসী। Romania-এর বেশীর ভাগ মানুষই Romanian-নামক Ethnic গোষ্ঠীর সদস্য। তবে, দেশটিতে Hungarian, German, Roma, Ukrainian-এ সকল Ethnic গোষ্ঠীর মানুষও রয়েছেন। দেশটির শহরাঞ্চলে বসবাস করা মানুষেরা সাধারণত পাশ্চাত্য ভাবধারার পোশাক পরিধান করে থাকেন। তবে গ্রামাঞ্চলের দিকে বসবাস করা মানুষেরা নিজেদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিধান করতে বেশী ভালোবাসে। Romania-তে মেয়েদের চুল দেখে বলে দেওয়া যায় যে সে কী বিবাহিত না কি অবিবাহিত। অবিবাহিত মেয়েরা চুল খোলা রাখতে পছন্দ করে এবং সাধারণত চুলে বেণী গেঁথে থাকে। আর বিবাহিত নারীরা Marama-নামক এক ধরণের কাপড় দিয়ে চুল ঢেকে রাখে।



Romania -এর জাতীয় পতাকার দিকে লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে সেখানে নীল (Blue), হলুদ (Yellow) এবং লাল (Red) এ তিনটি ভিন্ন রঙের সংমিশ্রণ রয়েছে যা Transylvania, Moldavia এবং Wallachia-এ তিনটি ভিন্ন স্থানকে প্রতিনিধিত্ব করে। এ তিনটি স্থান দেশটির ঐতিহাসিক একতার পরিচয় বহন করে। Romania-এর আজকের Border গঠিত হয়েছে 1920-সালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর France-এর Versailles-এ স্বাক্ষরিত “Treaty of Trianon” এর মাধ্যমে।
Romania-এর রাজধানী এবং বৃহত্তম নগরের নাম Bucharest. যা দেশটির শিল্প, সাহিত্য এবং বাণিজ্যের মধ্যবিন্দু। European Union-ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে জনসংখ্যার বিবেচনায় Bucharest ষষ্ঠ বৃহত্তম শহর। Romania এর National Parliament Parlamentul României এ Bucharest-এই অবস্থিত। এ Parliament Building-টি সারা পৃথিবীতে দ্বিতীয় বৃহত্তম নির্মাণ। যার আগে কেবল মাত্র Washington D.C.-তে অবস্থিত Pentagon-এর Building-ই রয়েছে। Romania-এর National Parliament Parlamentul României-কে পৃথিবীতে এ যাবৎ কাল পর্যন্ত নির্মিত সবচেয়ে ভারী Building-বলে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। অসাধারণ নির্মাণশৈলীর স্থাপত্যকলা, শহরের গঠন এবং ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং এর সাথে বিদ্যমান সাহিত্য এবং চিত্রকলার অপরূপ মেলবন্ধনের কারণে Bucharest-কে Eastern Europe-এর “Paris” নামেও ডাকা হয়।
প্রায় 92,045.6 Square-mile জায়গা জুড়ে থাকা Romania South-Eastern Europe-এর সবচেয়ে বড় দেশ এবং আয়তনে এটি Europe-মহাদেশের 12th Largest Country. যেখানে দেশটির দক্ষিণে Bulgaria, পশ্চিমে Serbia এবং Hungary আর পূর্বে Ukraine and Republic of Moldova -অবস্থিত। আর দেশটির দক্ষিণ পূর্বের প্রায় 245 Kilometre Line-বরাবর কৃষ্ণসাগর বা Black-sea এর উপকূল রয়েছে। Europe-এর দ্বিতীয় বৃহত্তম নদী Danube Austria, Slovakia, Hungary, Croatia, Serbia, Romania, Bulgaria, Moldova and Ukraine-এই নয়টি দেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে Romania-তে এসে করে কৃষ্ণসাগর বা Black-sea এর কাছে Danube Delta-নামক বদ্বীপ তৈরি করেছে। এ বদ্বীপটি পৃথিবীর মধ্যে বিভিন্ন ধরণের জৈব বৈচিত্র্যসম্পন্ন এবং স্থিতিশীল জলাভূমির মধ্যে একটি। এখানকার Apuseni পর্বতমালার নিম্নাংশে অবস্থিত Scărișoara-নামক হিমবাহটি Europe-এর দ্বিতীয় বৃহত্তম ভূ-গর্ভস্থ হিমবাহ যা আনুমানিক 3,500-বছরের পুরনো বলে মনে করা হয়। Carpathian পর্বতমালার পূর্ব ও দক্ষিণাংশ Romania 🇷🇴-এর মধ্যভাগে অবস্থিত। Europe-মহাদেশের প্রায় সবচেয়ে বেশী অঞ্চল জুড়ে বিরাজমান অনিয়মিত বন-জঙ্গলগুলো একমাত্র এ Romania-তে পড়েছে। এ সকল বন-জঙ্গল বিভিন্ন জীব-বৈচিত্র্যে পরিপূর্ণ। Brown Bear-এর জন্য Romania বিখ্যাত এবং Russia-এর অংশটুকু বাদ দিলে Europe-এর মধ্যে সবচেয়ে বেশী Brown Bear Romania-তেই পাওয়া যায়। দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলো বর্তমানে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে আর এ কারণে তাই পর্যটন শিল্প বা Tourism-বর্তমানে Romania -এর অর্থনীতির এক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
আঙুর, আপেল, সরষে এবং বিভিন্ন সবজি থেকে প্রস্তুতকৃত তেল থেকে আরম্ভ করে Chemical, লৌহ এবং ইস্পাত শিল্প, Machinery শিল্প, বস্ত্রশিল্প এবং মোটর গাড়ী তৈরির কারখানার মতো ভারী ভারী শিল্প Romania-এর অর্থনীতিকে করেছে অত্যন্ত বেগবান। প্রকৃতি থেকে পাওয়া প্রচুর পরিমাণে খনিজ তেল সম্পদ এবং পৃথিবীতে জমা থাকা স্বর্ণের এক বিশাল ভাণ্ডার Romania-তে রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। Romania-এ পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশী Wine-প্রস্তুতকারক দেশগুলোর মধ্যে একটি।এছাড়াও একটা সময় ছিলও যখন সম্পূর্ণ Europe মহাদেশে কাঁচ আর সিরামিক শিল্প মানেই Romania-এর একক আধিপত্যকে ইঙ্গিত করতো।
Romania-এর জাতীয় মুদ্রার নাম Romanian Leu. Leu শব্দের অর্থ হচ্ছে Lion বা সিংহ। 01 Romanian Leu=0.21 EURO এবং 01 Romanian Leu=21.97 Bngladeshi Taka.
Europe-এর অন্যান্য দেশগুলোর (e.g. Germany, France, Great Britain, Republic of Ireland, Austria, Sweden, Norway, Denmark, Switzerland, Netherlands, Finland, Italy, Spain, Belgium) থেকে Romania তুলনামূলকভাবে কম স্বচ্ছল অর্থনীতির দেশ। আর এ কারণে এ দেশের জনসাধারণের জীবন-যাত্রার মানও Europe-এর অন্যান্য দেশের মানুষের চাইতে নিম্ন। তবে Romania-এর মানুষেরা খুবই পরিশ্রমী এবং এ কারণেই দেশটি খুব দ্রুত উন্নতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। এ সকল সাধারণ এবং পরিশ্রমী জনগোষ্ঠীর কারণে দেশটি নানা প্রতিবন্ধকতা স্বত্বেও একতা বজায় রাখতে পেরেছে। বর্তমানে Romania European Union এবং NATO-এর মতো প্রতিপত্তিশালী সংস্থাগুলোর সদস্য এবং খুব শীঘ্রই Bulgaria এবং Croatia -এর সাথে Romania -ও Schengen-ভুক্ত রাষ্ট্রগুলোর তালিকায় যোগ হতে যাচ্ছে।
Romania-এর মানুষ তাঁদের বন্ধুসুলভ আচরণ এবং অতিথি আপ্যায়নের জন্য বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছে খুবই সমাদৃত। বলা হয়ে থাকে যে বিদেশী পর্যটক যাঁরা এ দেশে বেড়াতে আসেন তাঁদের কেউ যদি স্থানীয় ভাষায় কথা বলেন তাহলে সেখানকার মানুষেরা না কি খুবই খুশি হন। Romania-এর মানুষ অতিথিদের বিভিন্ন খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করতে ভালোবাসে।
Romania -এর আধিকারিক ভাষা Romanian এবং Romanian Language Italian/French Language-এর সাথে অনেকটা সাদৃশ্যপূর্ণ।  Eastern Europe-এর মধ্যে Romanian একমাত্র Language-যেটি Latin Language Family-এর অন্তর্ভুক্ত যার চারপাশ Slavic/Uralic Language Family-এর জাতিগোষ্ঠী দিয়ে পরিবেষ্টিত। অর্থাৎ Romanian Eastern Europe-এর মধ্যে একমাত্র Romance Language. দেশটির প্রায় 90% মানুষ এ ভাষায় কথা বলে থাকে। Romania-এর বাহিরে Republic of Moldova-তেও একটা বড় অংশের মানুষের ভাষা Romanian. এছাড়াও Hungarian, Serbian, German, Ukrainian-এ সকল ভাষারও প্রচলন দেশটিতে রয়েছে।
Romania-এর খাবারে Turkey, Greece, Bulgaria, Serbia, Ukraine, Italy -এ সকল দেশের প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে। Ciorbă Romania-এর একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার। Wine-এর জন্য Romania আলাদা এক Brand সারা বিশ্বব্যাপী। এছাড়াও জনপ্রিয় খাবার “Steak” এর উৎপত্তিস্থল হিসেবেও অনেকে Romania-এর নাম উচ্চারণ করে থাকেন।
Romania-এর সরকার ব্যবস্থা Unitary semi-presidential Republic যেখানে Prime-minister সরকার ব্যবস্থার প্রধান ব্যক্তিত্ব। 1944-সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় Romania Soviet Military-কর্তৃক আক্রমণের শিকার হয় এবং দেশটি তৎকালীন Soviet Union-এর একটি Satellite-রাষ্ট্রে পরিণত হয়। 1948-সাল থেকে 1989-সাল পর্যন্ত দেশটিতে Communism-প্রতিষ্ঠিত ছিলও। ইতিহাসের অন্যতম আলোচিত ব্যক্তিত্ব Nicolae Ceaușescu Romania-এর এক সময়কার রাষ্ট্রপ্রধান ছিলেন।



Football Romania-এর সবচেয়ে জনপ্রিয় Sports. Europe-এর জনপ্রিয় Footbal Club Steaua București-এর পীঠস্থান Romania-এর রাজধানী Bucharest-এ। এছাড়াও Tennis-দেশটির অন্যতম আরও একটি জনপ্রিয় Sports. WTA-এর Ranking-অনুযায়ী বর্তমানে শীর্ষে থাকা Tennis-তারকা Simona Halep-একজন Romanian. Olympic Games-এর ইতিহাসে সর্বপ্রথম একদম Perfect-ভাবে 10 out of 10 দেওয়া হয় (1976-সালে Canada Montreal-এ অনুষ্ঠিত Olympic Tournament-এ) Romania-এর এক Gymnast খেলোয়াড় Nadia Elena Comăneci-কে তিনি পাঁচ বার Olympic Games-এ অংশগ্রহণ করে Gold Medal লাভ করার গৌরব অর্জন করেছিলেন। World-এর অন্যতম সেরা Driving road-হিসেবে পরিচিত Transfăgărășan Highway-টি Romania-তে অবস্থিত এবং এটি পৃথিবীর সেরা Engineering নিদর্শনগুলোর মধ্যে একটি। এছাড়া Europe-এর মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত গতির Broadband Connection Romania-তে পাওয়া যায়। 2015-2016 অর্থবছরে Europe-এর সবচেয়ে বেশী অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির দেশ ছিলো Romania.
Romania -এর রাজধানী Bucharest-এ অবস্থিত কিছু মনোরম কারুকার্যবিশিষ্ট বইয়ের দোকান রয়েছে। Cărturești Carusel-নামক বইয়ের দোকানটিতে মনে করা হয় প্রায় দশ হাজারের মতো বই, পাঁচ হাজারের মতো Albums এবং DVD-এর মতো আরও কিছু জিনিস রয়েছে। Dacia-এর শেষ রাজা Decebalus-এর মুখচ্ছবির অনুকরণে করা শিলা ভাস্কর্যটি Romania -তে অবস্থিত। এ শিলা ভাস্কর্যটি উচ্চতায় প্রায় 140 Feet-এর মতো যা Europe-এর উচ্চতম শিলা ভাস্কর্য। পৃথিবীর দীর্ঘতম লবণের খনি Museum-টি Romania-এর Cluj County-তে অবস্থিত। অদ্ভুতভাবে এ খনিটি বিভিন্ন ধরণের Machine এবং হাত দিয়ে খোদাই করা হয়েছে। Romania-এর Sinaia শহরে অবস্থিত Peleș Castle Europe-মহাদেশের মধ্যে প্রথম Electrified Castle. এ Castle-এর আলোকসজ্জা থেকে আরম্ভ করে বৈদ্যুতিক সকল কার্যকলাপের জন্য প্রয়োজনীয় তড়িৎ শক্তি এ Castle-এই উৎপাদন করা হতো এবং এখনও সে ব্যবস্থা চালু রয়েছে। New York-এর পর Romania-এর Timișoara এ পৃথিবীর দ্বিতীয় কোনও শহর যেখানে বৈদ্যুতিক Street Light-এর ব্যবহার শুরু হয়। এ দেশেরই Peștera cu Oase-তে Europe মহাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে প্রাচীন Human Fossil-এর সন্ধান পাওয়া গেছে। Carbon Dating-এর সাহায্যে এর বয়স প্রায় 37,800 থেকে 42,000 বছর বলে জানা গিয়েছে। Merry Cemetery-নামক এক ধরণের কবর স্থান এ Romania-তে দেখতে পাওয়া যায় যা নান্দনিক শিল্পকর্মের জন্য খুবই আকর্ষণীয়। Săpânța-নামক গ্রামটিতে অবস্থিত এ কবরস্থানটি বর্তমানে একটি Open Air Museum এবং জাতীয় পর্যটন কেন্দ্র। Brașov-তে অবস্থিত Strada Sfori-নামক সড়কটিকে Europe-এর মধ্যে সবচেয়ে সরু Street-বলে গণ্য করা হয়।
1917-সালে দেশটির Ministry of Finance কর্তৃক Issue-হওয়া 10bani Note-টিকে এ যাবৎ কাল পর্যন্ত সবচেয়ে ক্ষুদ্র Paper-money হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।
Romania-তে কালো জাদুর বা Black Magic-এর ওপর Tax বসানও আছে এবং যে সকল মানুষ জাদু বিদ্যা কিংবা মানুষের ভবিষ্যৎ গণনার মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে তাদের ওপরে এ Tax-বসানও হয়। এ পেশায় নিয়োজিত হতে হলে সরকার থেকে Licence Permit-ও প্রয়োজন হয়।
Romania-এর সাথে বিশ্ববিখ্যাত অনেক আবিষ্কার এবং বৈজ্ঞানিকের নাম জড়িত। Jet-plane এর সর্বপ্রথম আবিষ্কার এ Romania-তে হয়েছিলও এবং Jet-plane এর যিনি আবিষ্কারক (Henri Marie Coandă) তিনি হলেন একজন Romanian. এছাড়াও মানব সভ্যতার ইতিহাসে সর্বপ্রথম কৃত্রিমভাবে Insulin-প্রস্তুত করা Nicolae Constantin Paulescu -ছিলেন একজন Romanian Biologist. পৃথিবীতে সর্বপ্রথম Fountain pen প্রস্তুত করেন Petrache Poenaru যিনি ছিলেন একজন Romanian. George Emil Palade, Stefan Walter Hell, Herta Müller কিংবা Eliezer Wiesel-এর মতো Nobel Laureate-দের জন্ম হয়েছিলও Romania -তে।
এতো বড় লেখার পর এতোটুকু বিষয় নিশ্চিত যে Romania -সত্যিকার অর্থেই একটি অসাধারণ দেশ এবং এর সাথে জড়িত কথাগুলোর পরিমাণও অনেক। তাই এ সামান্যটুকু তথ্যের সহযোগে Romania-এর যাত্রা আজ এখানেই শেষ করছি।

আমার দেখা Best Country-হচ্ছে Romania. আপনি একবার এ দেশে বেড়াতে গেলে এখানকার মানুষের ভালোবাসা, আন্তরিকতা আর অতিথেয়তায় এতো বেশী মুগ্ধ হবেন যে আপনি এ দেশেই থেকে যেতে চাইবেন।

এবার আসি মূল প্রসঙ্গে।

Romania-এর এ Government Scholarship-টি নিঃসন্দেহে সারা পৃথিবীর মধ্যে Prestigious Scholarship-এর মধ্যে একটি। এ Scholarship programme-এর আওতায় একজন শিক্ষার্থী Bachelor, Masters কিংবা Ph.D,-করতে পারেন।

মূলতঃ যে সকল রাষ্ট্র European Union-এর সদস্য নয় সে সকল রাষ্ট্রের নাগরিকেরা এ Scholarship-এর জন্য Apply-করতে পারেন। জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী বর্তমান পৃথিবীতে স্বাধীন এবং সার্বভৌম রাষ্ট্রের সংখ্যা 193-টি। আর এর মধ্যে European Union-এর সদস্য রাষ্ট্রের সংখ্যা আটাশ কিংবা উনত্রিশ। তাহলে বলা যায় যে বাকী 164-টি রাষ্ট্রের নাগরিকদের মধ্য থেকে মাত্র 85-টি Scholarship বরাদ্দ। এ থেকে বোঝা যায় যে এ Scholarship-এর জন্য Nominated হতে হলে আপনাকে সেই Level-এর Sharp হতে হবে Academic দিক থেকে এবং আপনার Résumé সে রকমভাবে সমৃদ্ধ হতে হবে এবং Co-curricular Activities-এর সাথে সংশ্লিষ্টতা এ Scholarship-প্রাপ্তির জন্য আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

একজন শিক্ষার্থী এ Scholarship-এর অধীনে Bachelor Complete-করতে পারবে, Masters Complete-করতে পারবে এমনকি Ph.D. Complete-ও করতে পারবে। বিগত বছরগুলোতে এ Scholarship এর অধীনে যাঁরা Romania-তে গিয়েছিলেন তাঁদের জন্য English কিংবা French-এ পড়াশুনার সুযোগ থাকলেও এ বছর থেকে Romania-এর সরকার বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে যে Scholarship Holder-দের প্রত্যেকে Romania-এর স্থানীয় ভাষাতে পড়াশুনা করবে এবং এজন্য Romania-তে যাওয়ার পর প্রথমে আপনাকে সরাসরি মূল Programme-এর পরিবর্তে Romanian Language Course-এ Admission দেওয়া হবে এবং আপনি যদি Romanian-ভাষায় যথেষ্ট দক্ষতা দেখাতে পারেন তাহলে কেবল পরবর্তীতে আপনি মূল Programme-এ Enrolment পাবেন।
সাধারণতঃ প্রত্যেক বছরের December-এর মাঝামাঝি থেকে শুরু করে পরব্রত বছরের March মাসের মাঝামাঝি সপ্তাহ পর্যন্ত এ Scholarship-এর আবেদন গ্রহণ করা হয়।
Medicine এবং Pharmacy এ দুইটি বিষয় ছাড়া বাকী সকল বিষয়ে আপনি লেখাপড়া করতে পারবেন এ Scholarship এর অধীনে।
এ Scholarship-এর আওতায় Romania-তে আপনার লেখাপড়ার সকল খরচ বহন করবে সে দেশের সরকার, আপনাকে Student Hostel-এ রাখা হবে। Tuition Fees এবং Accommodation এর পাশাপাশি আনুসাঙ্গিক ভাবে প্রত্যেক মাসে একজন Bachelor Student-কে 65 EURO, Masters-এর Student-কে 75 EURO এবং Ph.D. এর Student-কে 85 EURO-করে দেওয়া হবে হাত খরচ হিসেবে। অনেকে এখানে দাবি করতে পারেন যে এ Amount সত্যি খুব কম এবং আমিও এ ব্যাপারে দ্বিমত করবো না বিশেষ করে Bucharest, Brașov, Timișoara, Iași-এর মতো বড় শহরের ক্ষেত্রে যদি আমরা হিসেব করি।  Summer-এর সময় যেহেতু University বন্ধ থাকে তাই এ সময় Allowance-দেওয়া হয় না।
i) ক্লাসে আপনার Percentage একটা নির্দিষ্ট অঙ্কের মধ্যে থাকতে হবে;
ii) কোনও Subject-এ Fail-করা যাবে না;
iii) আর প্রত্যেক সেমিস্টারে একটি নির্দিষ্ট CGPA থাকতেই হবে;
স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে স্বাধীনতা রক্ষা করা যে রকমভাবে আরও বেশী কঠিন ঠিক তেমনি এ Scholarship পেতে হলে আপনাকে যেমনভাবে Highly Qualified হতে হবে ঠিক তেমনি এ Scholarship রক্ষা করতে হলেও আপনাকে কোনও উনিশ থেকে বিশ এমনকি সাড়ে উনিশ করাও চলবে না।
Scholarship-এর Application করার ক্ষেত্রে নীচের Documents গুলো প্রয়োজন:-
i) MFA Application Form;
ii) MNE Application Form;
iii) সমস্ত Educational Certificate এবং Mark-sheet;
iv) Birth Certificate-এর কপি;
v) Passport-এর Biographical Page এবং সেই সাথে প্রথম তিন পৃষ্ঠা;
vi) Medical Certificate (Medical Certificate-এ স্পষ্টভাবে উল্লেখ থাকতে হবে যে the applicant does not have any sort of contagious diseases or other conditions incompatible with the required studies);
vii) Résumé;
viii) দুই কপি ছবি;

এছাড়াও Scholarship-এ Application করতে হলে আপনাকে Romania-এর Embassy অথবা কোনও Diplomatic Mission থেকে একটা Official Letter জোগাড় করতে হবে। আপনাকে সমস্ত Academic Documents দিল্লিতে অবস্থিত Romania-এর Embassy থেকে Attested করাতে হবে আর Romania-এর Embassy আপনার Documents ঠিক তখনই Attested করবে যখন আপনার Documents বাংলাদেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দ্বারা সত্যায়িত হবে। সেই সাথে Notary-এরও প্রয়োজন হতে পারে এবং আমার জানা মতে দিল্লির Romania-এর Embassy Documents Attestation করার জন্য per page 2850 Indian Rupees করে রাখে এবং Original Documents দেখেই তাঁরা Attestation করে। দিল্লিতে অবস্থিত Romania-এর Embassy-এর সাথে যোগাযোগের ঠিকানা:-

Address: D 6/6, Vasant Vihar, New Delhi

Phone: 0091 11 26140447; 26140700

Fax: 0091 11 26140611

Website:http://newdelhi.mae.ro/

E-mailnewdelhi@mae.ro

embrom@airtelmail.in

https://newdelhi.mae.ro/en/node/397

এছাড়াও ঢাকার মৌচাকের Cosmos Centre-এ Romania-এর একটি Official Consulate-রয়েছে, আপনারা এ Consulate Office-এর সাথেও যোগাযোগ করে দেখতে পারেন।
আর Birth Certificate পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দ্বারা সত্যায়িত হতে হবে। সমস্ত Documents English কিংবা French অথবা Romanian ভাষায় হতে হবে।

Scholarship-এর ব্যাপারে আরও বিস্তারিত তথ্য পাবেন নীচের Website-এ:-

http://www.mae.ro/en/node/10251

সমস্ত Documents Ready হয়ে গেলে আপনি সেগুলোকে পাঠিয়ে দিবেন Romania-এর রাজধানী Bucharest-এ অবস্থিত Ministry of Foreign Affairs-এর কাছে, তাঁরা আপনার Documents-গুলো যাচাই-বাছাই করে সেগুলো পাঠিয়ে দিবে MNE-এর হাতে এবং এ MNE-ই শেষ পর্যন্ত আপনার Scholarship-এর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দিবে। সাধারণত সকল প্রক্রিয়া শেষ হতে হতে সময় লাগে June মাসের মাঝামঝি সময় লেগে যায়। Ministry of Foreign Affairs কিংবা MNE-এর Authority চাইলে আপনার Interview নিতে পারে।



Romania-এর কিছু উল্লেখযোগ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে University of Bucharest”, “Babes-Bolyai University”, “Alexanderu Ioan Cuza University”, “Transylvania University of Brașov”. এদের মধ্যে University of Bucharest সারা বিশ্বে সমাদৃত একটি বিশ্ববিদ্যালয়। Romania-এর অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনও কোনও Subject-এ Bachelor Complete করতে হলে H.S.C. এর পর আরও এক বছরের University Education চাওয়া হয়, অনেক University-তে Bachelor কিংবা Masters-এর জন্য Apply-করতে হলে একটা নির্দিষ্ট Grade (70%-এর মতো Number) থাকা আবশ্যক আর Ph.D. এর Applicant হলে Research Proposal-এর পাশাপাশি Supervisor থেকে একটা Letter-এর ব্যবস্থা করতে হবে।
যেহেতু বাংলাদেশে Romania-এর কোনও Embassy নেই তাই VISA-এর জন্য আপনাকে দিল্লিতে যেতে হবে এবং প্রয়োজনীয় Documents Embassy-এর Authority-এর কাছে জমা দিলে তাঁরা চার থেকে ছয় সপ্তাহ(কিংবা এর কম সময়ের মধ্যেও হতে পারে) সময়ের মধ্যে আপনার Passport-এ VISA-এর Sticker বসিয়ে দিবে, VISA-এর জন্য কোনও ধরণের Embassy Interview-এর প্রয়োজন হয় না। এরপর Romania-তে পৌঁছানোর চার সপ্তাহ মধ্যে আপনাকে University-এর মাধ্যমে Registration সম্পন্ন করে Temporary Residence Permit-এর জন্য আবেদন করতে হবে।
Romania-তে উচ্চশিক্ষা বিষয়ক আমার আরও একটি Post-রয়েছে, সেখানে গিয়েও একবার ঢু মেরে আসতে পারেন।
আজ তাহলে এ পর্যন্ত।
সকলে ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন!!!

আল্লাহ্ হাফেজ!!!

আর ইউরোপে বেড়াতে আসলে অবশ্যই চেষ্টা করবেন Romania-তে একবার হলেও বেড়াতে আসার জন্য। ইউরোপে আমার ভ্রমণ করা সেরা দেশ হচ্ছে Romania. এ দেশের অসাধারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য আর মানুষের আতিথেয়তা আপনাকে এতোটাই মুগ্ধ করবে যে আপনি বারবার চাইবেন ঘুরে ফিরে Romania-তে আসার জন্য।

ফেসবুক মন্তব্য
Print Friendly, PDF & Email
 
শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *