ধাপে ধাপে চেক প্রজাতন্ত্রে উচ্চশিক্ষা

সংক্ষিপ্ত পরিচিতিঃ

চেক প্রজাতন্ত্র সেন্ট্রাল ইউরোপের একটি দেশ। অফিসিয়াল ভাষা চেক। আয়তন ৭৮৮৬৬ বর্গ কিলোমিটার। লোকসংখ্যা ১০,৫৫৩,৪৪৩। এর রাজধানী প্রাগ। এর চারপাশের দেশ গুলি হল- অস্ট্রিয়া, জার্মানি, পোল্যান্ড এবং স্লোভাকিয়া। দেশটি ২০০৪ সালে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অধিভুক্ত হয় এবং ২০০৭ সালে সেনজেনভুক্ত হয়। তাঁদের মাথাপিছু আয় ৩২,৬২২ ডলার। মুদ্রার নাম চেক ক্রুনা। চেক প্রজাতন্ত্রে বেশ কিছু নামি দামি কোম্পানি রয়েছে। বিখ্যাত জুতার ব্র্যান্ড ‘Bata’ এর নাম শুনে নি এমন মানুষ খুব কম পাওয়া যাবে। ‘Bata’ কোম্পানির উৎপত্তিস্থল কিন্তু চেক প্রজাতন্ত্রে। ১৮৯৪ সালের ২৪ আগস্ট টমাস বাটা এই কোম্পানির যাত্রা শুরু করেন। এছাড়া sugar cubes, contact lenses, semtex, fingerprints, cell theory, blood type classification, the word “robot”, polarography, arc lamp, lightening conductor, ship’s propeller ইত্যাদি উদ্ভাবনকারী দেশ চেকিয়া।

ইউনিভার্সিটিতে আবেদন ও অন্যান্য তথ্যাবলিঃ

শিক্ষার মানঃ

চেক প্রজাতন্ত্রের শিক্ষার মান বেশ ভাল। এখানে অনেক পুরাতন ও বিখ্যাত ইউনিভার্সিটি আছে যেগুলি ওয়ার্ল্ড রাঙ্কিং এ এগিয়ে আছে। চার্লস ইউনিভার্সিটি, প্রাগ এর মধ্যে অন্যতম। এটি কেন্দ্রীয় ইউরোপের ১ম পুরাতন ইউনিভার্সিটি। উচ্চ শিক্ষার জন্য চেক হতে পারে আপনার আদর্শ স্থান। বাংলাদেশে এইচএসসি পাশ স্টুডেন্টস চেক ইউনিভার্সিটি তে আবেদন করতে পারবেন।



চেকের কয়েকটি টপ র‍্যাংকড ইউনিভার্সিটি হচ্ছেঃ
ইউনিভার্সিটিতে আবেদনের সময় ও টিউশন ফিঃ
বছরে ২ টা সেশানে অ্যাপ্লাই করা যায় নভেম্বর/ডিসেম্বর এবং এপ্রিল/মে। টিউশন ফি প্রতি বছরে ২০০-১৪০০০ ইউরো পর্যন্ত হয়ে থাকে। রেজাল্ট কমপক্ষে ৬০% থাকা ভালো। 
চেক ইউনিভার্সিটিতে অ্যাপ্লিকেশান এর সময় প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস
  • অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন
  • অ্যাপ্লিকেশান ফি ২০ – ৮০ ইউরো
  • আপনার ছবি ( যদি লাগে, সাইজ ইউনিভার্সিটি বলে দিবে)
  • ( ব্যাচেলর, মাস্টার এর জন্য)র সার্টিফিকেট ট্রান্সকিপ্টের নোটারি কপি ( অনেক বিশ্ববিদ্যালয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়িত কপি চায় )
  • ইউরোপাস ফরম্যাটের সি ভি (যদি চায়)
  • মোটিভেশন লেটার
  • আইইএলটিএস স্কোর ৫.৫ – ৬.৫ ( প্রিভিয়াস স্টাডি মিডিয়াম অব ইন্সট্রাকসান ইংলিশ হলে আইইএলটিএস লাগবে না, সেক্ষেত্রে আপনার ইউনিভার্সিটির রেজিস্টার বা এক্সাম কন্ট্রোলারের নিকট থেকে এই সার্টিফিকেট নিতে হবে এবং তা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়িত করতে হবে ), কিছু ইউনিভার্সিটিতে আইইএলটিএস ছাড়াও আবেদন করা যায়।
  • ওয়ার্ক এক্সপেরিয়ান্স যদি থাকে ( ইন্টারনসিপের সার্টিফিকেট দিতে পারেন )
  • রিকমেনডেসান লেটার
  • পাসপোর্টের ফটোকপি
উপরোক্ত ডকুমেন্টের হার্ড কপি সমূহ আপনাকে ইউনিভার্সিটির অ্যাড্রেসে ডেডলাইনের মধ্যেই পাঠাতে হবে, কিছু ইউনিভার্সিটিতে অনলাইনেই আপলোড করতে হয়। তারপর আপনাকে এনট্রান্স টেস্ট অথবা স্কাইপ ইন্টারভিউ দিতে হবে। সর্বোচ্চ ১ মাসের মধ্যে ইউনিভার্সিটি আপনাকে জানাবে আপনি উত্তীর্ণ হয়ছেন কিনা।
উত্তীর্ণ হলে ইউনিভার্সিটি আপনাকে ইমেইলে অফার লেটার পাঠাবে এবং তাদের ১ম বর্ষ বা ১ম সেমিস্টারের টিউসন ফি অগ্রিম দিতে হবে (ভার্সিটিভেদে ভিন্ন হতে পারে)। যদি আপনার ভিসা না হয় তাহলে আপনার টাকা রিফানডেবল হবে। টিউসন ফি প্রদানের পর ইউনিভার্সিটি আপনার হোম এড্রেসে এম্বাসি ফেইস করার জন্য ফাইনাল লেটার হার্ড কপি পাঠাবে।
মনে রাখবেন ক্লাস শুরু হওয়ার কমপক্ষে ২ মাস আগে ভিসার জন্য আবেদন করতে হয়। কারন চেকের ভিসা প্রসেস হতে ২ মাস, কোন কোন ক্ষেত্রে ৩ মাস সময় লাগে।



স্কলারশিপ

উন্নয়নশীল দেশের জন্য চেক সরকার বিভিন্ন স্কলারশিপ দিয়ে থাকে, বিস্তারিতঃ https://bit.ly/2M9em2r
আন্তঃদেশীয় স্কলারশিপঃ https://bit.ly/2MltZUK

ভিসা সংক্রান্ত তথ্যঃ

longterm_bgd.npl@mzv.cz এই ইমেইল এড্রেসে ভিসা ইন্টারভিউ এর জন্য এপোয়েন্টমেন্ট নিতে হবেএপোয়েন্টমেন্ট নেওয়ার ফরম্যাট জানতে, এখানে যানঃ https://bit.ly/2M7KIdL
ভিসা ইন্টার্ভিউ এর জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসঃ
  • অরিজিনাল পাসপোর্ট (কমপক্ষে ৩ মাস মেয়াদ থাকা লাগবে)
  • ১ কপি ছবি (৩.৫ X ৪.৫ সে.মি.)
  • পূরণ করা লঙ টার্ম ভিসা এপ্পলিকেসান ফর্ম। ফর্মটি এই https://bit.ly/2Mces9C ওয়েবসাইট হতে ডাউনলোড করুন।
  • অফার লেটারের অরিজিনাল কপি
  • একুমোডেশন এর অরিজিনাল হার্ড কপি ( কমপক্ষে ০৬ মাসের জন্য নিবেন )
  • এপ্লিকেন্টের একাউন্টে ৬ – ৭ লাখ (৯২,১৩০ চেক ক্রুনা – বাংলাদেশী টাকায় কমবেশি ৩৭০,০০০ টাকা দেখালেই যথেষ্ট, বিস্তারিত সর্বশেষ তথ্যঃ bit.ly/2RjAhnK) টাকার ব্যাংক ব্যালেন্স/স্টেটমেন্ট দেখাতে পারলে ভাল( ব্লক অ্যাকাউন্ট নয় ), ব্যাংক সার্টিফিকেট এবং সর্বশেষ ৩ মাসের স্টেইটমেন্ট ব্যাংক ম্যানেজার কতৃক স্বাক্ষরিত হতে হবে। (পিতা-মাতা স্পন্সর হতে পারবে এবং তার একাউন্টে টাকা দেখানো যাবে, সেক্ষেত্রে আপনার পিতা-মাতা কে একটি এফিডেভিট করে দিতে হবে যেখানে উল্লেখ থাকবে যে, চেকে থাকাকালীন সকল খরচ আপনার স্পন্সর বহন করবেন )। যে একাউন্টে ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখাবেন সে একাউন্টের সাথে লিংকড ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট কার্ড (ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড) লাগবেই। বিস্তারিতঃ bit.ly/38rGaFi
  • অরিজিনাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ( অরিজিনাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটটি নোটারাইজ করে নিবেন)
  • রেসিডেন্স পারমিট এপ্রুভড হওয়ার পরে ভিসা আবেদনের সময় হেলথ ইন্স্যুরেন্স লাগবে
**সকল ডকুমেন্টস চেক ল্যাঙ্গুয়েজে ট্রান্সলেট করতে হবে এবং সুপারলিগ্যালাইজ (শিক্ষা বোর্ড, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও চেক এমব্যাসি থেকে সত্যায়ন) করতে হবে । কিছু ইউনিভার্সিটিতে অফিসিয়াল অফার লেটার পাওয়ার আগেই সুপারলিগ্যালাইজ করতে হয়। 



বিঃদ্রঃ যারা ইতিমধ্যে বাংলাদেশের বাহিরে এক বা একধিক রাষ্ট্রে ০৬ মাসের অধিক ছিলেন, তাঁরা অবশ্যই ঐ রাষ্ট্র বা রাষ্ট্র গুলি থেকে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নিতে হবে, যা এম্বাসিতে জমা দিতে হয়। এবং আপনার দেশের বাহিরে থাকার উদ্দেশ্য কি ছিল, তার প্রমান পত্র দেখাতে হবে। যদি আপনার দেশের বাহিরে থাকার উদ্দেশ্য যদি পড়াশুনা হয়, তাহলে সেখানের কোর্স কমপ্লিশন সার্টিফিকেট এর ফটোকপি সাবমিট করতে হবে।
কিছু প্রাইভেট একুমোডেশন এর ওয়েবসাইটঃ
পার্ট – টাইম জব সুবিধা ও পড়াশোনা শেষে জব খোঁজাঃ
বিদেশী শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে ২০ ঘণ্টা কাজের সুযোগ পাবেন। থাকা – খাওয়া বাবদ মাসে ৩০০ – ৪০০ ইউরো এর মত লাগতে পারে। পড়াশোনা শেষে ৯ মাসের জন্য জব খোঁজার ভিসা পাবেন (জুলাই ২০১৯ থেকে নতুন নিয়ম)
স্থায়ী বসবাসঃ
একটানা ৫ বছর বৈধভাবে থাকার পরে স্থায়ীভাবে থাকার জন্য আবেদন করা যাবে। পড়াশোনার সময়কালের অর্ধেক ধরা হবে ( ৩ বছরের কোর্স হলে ১.৫ বছর গণনা করা হবে)। সেই সাথে চেক ভাষা দক্ষতা সহ আনুসঙ্গিক আরও কিছু যোগ্যতা থাকতে হয়।
কিছু জনপ্রিয় জব পোর্টালঃ
চেক এমব্যাসি ভারত, ওয়েবসাইটঃ http://www.mzv.cz/newdelhi
চেক কনস্যুলেট বাংলাদেশ, ওয়েবসাইটঃ http://www.czechrepublicbd.com/home
আরও বিস্তারিত জানতে নিচের লিঙ্কে যানঃ
ফেসবুক মন্তব্য
Print Friendly, PDF & Email
 
শেয়ার করুনঃ

Mahedi Hasan

স্বপ্নবাজ ও ভ্রমণপিপাসু একজন মানুষ। নতুন কিছু জানতে ও শিখতে ভালো লাগে। নিজে যা জানি তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার সম্পর্কেঃ http://www.hmahedi.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *