ধাপে ধাপে রাশিয়ায় উচ্চশিক্ষা

দেশ পরিচিতিঃ
রাশিয়া (রুশ: Россия রশিয়া), সরকারিভাবে রুশ ফেডারেশন নামে পরিচিত (রুশ: Российская Федерация রশিস্কায়া ফিদিরাৎসিয়া) যেটা উত্তর ইউরেশিয়াতে অবস্থিত বিশ্বের বৃহত্তম দেশ। এই দেশটি অর্ধ প্রেসিডেনসিয়াল ফেডারেল প্রজাতন্ত্র যার সংবিধান ৮৩ টি ফেডারেল বিষয় দ্বারা গঠিত। রাশিয়ার উত্তর-পশ্চিম থেকে দক্ষিণ-পূর্ব পর্যন্ত নরওয়ে, ফিনল্যান্ড, এস্তোনিয়া, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া ও পোল্যান্ড (উভয় দেশই কালিনিনগ্রাদ অব্লাস্ত সীমান্ত দিয়ে যুক্ত), বেলারুশ, ইউক্রেন, জর্জিয়া, আজারবাইজান, কাজাখস্তান, চীন, মঙ্গোলিয়া ও উত্তর কোরিয়ার সাথে সীমান্ত আছে। দেশটির অখতস্ক সাগরের মাধ্যমে জাপানের সাথে ও বেরিং প্রণালীতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কার সাথে সামুদ্রিক সীমানা রয়েছে। রাশিয়া বিশ্বের বৃহত্তম দেশ যার রয়েছে পৃথিবীর মোট আবাসযোগ্য জমির এক অষ্টমাংশ। দেশটির মোট আয়তন ১৭,০৭৫,৪০০ বর্গকিলোমিটার (৬,৫৯২,৮০০ বর্গমাইল)। রাশিয়া বিশ্বের নবম জনবহুল দেশ যেখানে ২০১২ হিসাব অনুযায়ী ১৪৩ মিলিয়ন লোক বসবাস করে।উত্তর এশিয়া ও পূর্ব ইউরোপে জায়গা সম্প্রসারণের ফলে রাশিয়া ৯টি সময় অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত এবং এখানে অনেক রকম ও বিস্তৃত পরিবেশের সমন্বয় ঘটেছে।
রুশ বিপ্লবের পর রুশীয় সোভিয়েত যুক্তরাষ্ট্রীয় সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র ছিল সোভিয়েত ইউনিয়নের বৃহত্তম, নেতৃস্থানীয় ও প্রয়োজনীয় সদস্য হয়ে ওঠে যা সংবিধান অনুযায়ী একটি সমাজতান্ত্রিক দেশ। এসময় এটি অত্যন্ত শক্তিশালী দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে যেটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নিষ্পত্তিমূলক ভূমিকা পালন করে। সোভিয়েত যুগ ২০তম শতকের কিছু উল্লেখযোগ্য প্রযুক্তিগত সাফল্য পেয়েছিল যার মধ্যে ছিল বিশ্বের প্রথম মহাকাশযান ও প্রথম নভোচারী। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙ্গে যাওয়ার পর সোভিয়েতের রুশীয় প্রজাতন্ত্র আর রুশ ফেডারেশন হিসেবে গঠিত হয় এবং একক রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃত হয়।
রুশ অর্থনীতির তথাকথিত জিডিপি ও সমক্রয় ক্ষমতা বিশ্বের মধ্যে অষ্টম বৃহত্তম।রাশিয়ার ব্যাপক খনিজ ও জ্বালানি সম্পদ একে বিশ্বের বৃহত্তম মজুদদার হিসেবে তৈরি করেছে।এটি বিশ্বের সর্বোচ্চ তেল ও গ্যাস উৎপাদনকারী দেশ। দেশটি পারমাণবিক শক্তি সম্পন্ন পাঁচটি স্বীকৃত দেশের মধ্যে অন্যতম এবং দেশটির বিশ্বের বৃহত্তম ধ্বংসাত্মক অস্ত্রভাণ্ডার রয়েছে। রাশিয়া একটি পরাক্রমশালী রাষ্ট্র যেটি জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য এবং জি ৮, জি ২০, দি কাউন্সিল অফ ইউরোপ, দি এশিয়া প্যাসিফিক ইকোনোমিক কোঅপারেশন, সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা, ইউরেশীয় অর্থনৈতিক কমিউনিটি, ইউরোপ নিরাপত্তা সংগঠন কাউন্সিল (ও এস সি ই) ও বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদস্য। স্বাধীন রাষ্ট্রের কমনওয়েলথের অন্যতম সদস্য।জেনে রাখা ভাল রাশিয়া ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও সেনজেনভুক্ত দেশ না।
রাশিয়ার শিক্ষা নিয়ে কিছু কথাঃ
রাশিয়ার বেশির ভাগ ইউনিভার্সিটি পুরাতন ও এর মধ্যে কিছু বিশ্বখ্যাত ইউনিভার্সিটি রয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলঃ
1.Lomonosov Moscow State University,
2.Saint Petersburg State University,
3. Novosibirsk State University,
4.Bauman Moscow State Technical University,
5. Moscow State Institute of International Relations,
6. Moscow Institute of Physics and Technology,
7. Peoples’ Friendship University of Russia,
8. National Research Nuclear University MEPhI,
9. Peter the Great St. Petersburg Polytechnic University,
10. National Research Tomsk State University
11. National Research University – Higher School of Economics
12. Federal State Autonomous Educational Institution of Higher Education “National Research Tomsk Polytechnic University
13. Kazan (Volga region) Federal University
14. Ural Federal University named after the first President of Russia B.N.Yeltsin
15. National Research Saratov State University এ ছাড়াও অনেক ভাল ইউনিভার্সিটি আছে।
ইউনিভার্সিটিতে আবেদনের যোগ্যতা, সময় ও প্রক্রিয়াঃ
রাশিয়ান ইউনিভার্সিটিতে প্রতি বছর ২ বার আবেদন করা যায়। একটি সামার (ফেব্রুরারি) এই সেশানে মেইনলি কিছু ইউনিভার্সিটি ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্স অফার করে থাকে। অপরটি উইন্টার (সেপ্টেম্বর) সেমিস্টার এটি রাশিয়ার মেইন শিক্ষাবর্ষ। টিউসান ফী বছরে ৮০০ – ৭০০০ আমেরিকান ডলার পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং ১৫০-২০০ ডলার লিভিং এক্সপেন্সের জন্য লাগবে । এসএসসি, এইচএসসি, ব্যাচেলর এ ৫০% মার্কস থাকলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফার লেটার পাওয়া সহজ হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন ফী ১০০ ডলার কিছু ইউনিভার্সিটিতে লাগতে পারে তবে বেশির ভাগ ইউনিভার্সিটিতে লাগে না। আবেদন করতে সাধারণত IELTS খুব কম ইউনিভার্সিটিতে লাগে, তবে বেশির ভাগ ইউনিভার্সিটি তে লাগে না কেননা বেশির ভাগ ইউনিভার্সিটি রাশিয়ান মিডিয়াম এ কোর্স অফার করে তাই ১ বছর রাশিয়ান ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্স ইউনিভার্সিটির আন্ডার এ করতে হয়।
আবেদনের সময় প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসঃ
১। আবেদন ফর্ম
২। পাসপোর্টের স্কান কপি
৩। সকল একাডেমিক সার্টিফিকেটের স্ক্যান কপি
৪। মটিভেশন লেটার (যদি চাই) ৫। ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ প্রফিসিয়ান্সি সার্টিফিকেট IELTS অথবা ইংলিশ মিডিয়াম অব ইন্সট্রাকসান (যদি চাই)
নোটঃ কিছু ইউনিভার্সিটি আপনার একাডেমিক সার্টিফিকেট গুলোর রাশিয়ান ল্যাঙ্গুয়েজ এ ট্রান্সলেট কপির স্কান কপি চাইতে পারে।
যদি আপনি মনোনীত হন, বিশ্ববিদ্যালয় আপনাকে অফার লেটার ইস্যু করবে যার জন্য ৩০-৪৫ দিন সময় লাগবে।কিছু বিশ্ববিদ্যালয় তাদের অ্যাকাউন্টে আপনাকে ১ম বছর বা ১ম সেমিস্টারের টিউসান ফী প্রদান করতে বলবে তবে কথা বলে নিবেন এটি রাশিয়াতে বাধ্যতামূলক না।
ভিসাঃ
ইউনিভার্সিটি থেকে অফার লেটার পাবার পর আপনাকে রাশিয়ান ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে ঢাকার গুলশানে রাশিয়ান এম্বাসিতে।সাধারণত রবি,মঙ্গল,বৃহস্পতি এই ৩ দিন সকাল ৮ঃ৪৫ হতে ১১;৪৫ পর্যন্ত ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।
ভিসার জন্য যেসব ডকুমেন্টস লাগবেঃ
১ । অরিজিনাল পাসপোর্ট
২। কমপ্লিট ভিসা আবেদন ফর্ম
৩। এক কপি রঙ্গিন ছবি
৪। একটি ভ্যালিড ওয়ান ওয়ে ফ্লাইট বুকিং দিতে হবে। ( এতে কোন টাকা পয়সা খরচ হয় না)
৫। অফার লেটারের হার্ড কপি
৬। লিগেলাইজ সার্টিফিকেটস(বোর্ড,এডুকেশন মিনিষ্ট্রি,ফরেন মিনিষ্ট্রি) ১সেট মেইন ও ১ সেট লিগেলাইজ ফটোকপি সার্টিফিকেটসের নোটারী করতে হবে। ৭।স্পন্সর এর এফিটএভিট অফ সাপোট(১টি ১০০ ও ১টি ৫০ টাকার স্ট্যাম্প এর উপর করতে হবে )
৮। মেডিকেল সার্টিফিকেট ৯।ট্রান্সলেট সার্টিফিকেট(চাইলে রাশিয়া আসার পর করতে পারেন) ১০। সকল পেপারস্ এর ১ সেট ফটোকপি।
নোটঃ লিগেলাইজ ফটোকপি সার্টিফিকেটস (৪টি) সত্তায়িত করতে হবে তার জন্য প্রতি পেজ ৩০০০ টাকা করে নিবে।ভিসা ফিস ৪০০০ টাকা।ভিসা অ্যাপ্লাই করে পাসপোর্ট জমা দেওয়ার ৭ দিন পর পাসপোর্ট ফেরত দিবে।পাসপোর্ট হাতে পাওয়ার পর বুঝতে পারবেন আপনার ভিসা হইয়েছে কি হইনি যদি ভিসা না পেয়ে থাকেন তাহলে অ্যাাপিয়েল করার কোনও সুযোগ নাই ।নতুন অফার লেটার নিয়ে এসে আবার অ্যাপ্লাই করতে পারবেন।
স্কলারশিপঃ
প্রতি বছর ফেব্রুয়ারী মাসে রাশিয়ান গভর্নমেন্ট থেকে স্কলারশিপ এর জন্য রাশিয়ান এডুকেশন মিনিষ্ট্রি থেকে সার্কুলার দেওয়া হয় এইসময় ঢাকার ধানমণ্ডিতে রাশিয়ান সায়েন্স অ্যান্ড কালচারাল সেন্টারে আবেদন করতে হই।স্কলারশিপ পেলে টিউশন ফি লাগেনা ও অল্প কিছু টাকা প্রতি মাসে লিভিংকষ্ট এর জন্য পাওয়া যাই। এছাড়া রাশিয়াতে বাংলাদেশি স্টুডেন্টদের জন্য তেমন কোন ভালো স্কলারশিপ নেই।রাশিয়াতে খুব অল্প কিছু ইউনিভার্সিটি নিজস্ব স্কলারশিপ দিয়ে থাকে।
পার্ট – টাইম জব নিয়ে কিছু কথাঃ
ছাত্র অবস্থায় আপনি সামারে অনুমতি ছাড়া জব করতে পারবেন যদি জব মেনজ করতে পারেন। আর তাছাড়া বছরের বাকি সময় কাজ করতে চাইলে আপনাকে ফেডারেল মাইগ্রেশন থেকে অনুমতি নিতে হবে সেটি বড়ই কষ্টসার্ধ ব্যাপার।
কিছু গুরুত্বপূর্ণ লিঙ্কঃ
বিস্তারিত জানার জন্যঃ http://studyinrussia.ru/en/
রাশিয়ান এমব্যাসি বাংলাদেশঃ http://bangladesh.mid.ru/
রাশিয়ান ল্যাঙ্গুয়েজ শিখার জন্যঃ http://www.russianforfree.com/lessons-russian-language-contents.php
ধন্যবাদ
Writer: Md Abul Bashar Jehadi
ফেসবুক মন্তব্য
Print Friendly, PDF & Email
 
শেয়ার করুনঃ

Mahedi Hasan

স্বপ্নবাজ ও ভ্রমণপিপাসু একজন মানুষ। নতুন কিছু জানতে ও শিখতে ভালো লাগে। নিজে যা জানি তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার সম্পর্কেঃ http://www.hmahedi.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *