Credit থেকে ECTS এ রূপান্তরের ঝামেলা? আর নয়!

আজকে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করছি। আমাদের দেশে যারা ইউনিভার্সিটি লেভেলে পড়াশোনা করছেন তারা সকলেই একটি শব্দের সাথে পরিচিত আছেন, থাকার কথা। সেটা হচ্ছে ক্রেডিট (Credit)। কিন্তু ইউরোপে এটাকে ক্রেডিট বলে না, বলে ECTS অর্থাৎ European Credit Transfer and Accumulation System । কিন্তু এই Credit এবং ECTS ই ঝামেলা সৃষ্টি করে। কারণ অনেক ইউনিভার্সিটি তে নির্দিষ্ট কোর্সে বা বিষয়ে নির্দিষ্ট ECTS বা Credit থাকতে হবে বলে থাকে। ঠিক তখনই আমরা মহাবিপদে পড়ি। এমনিতেই থাকে অ্যাপ্লাই ও টাকা পয়সার চিন্তা তারমধ্যে আবার কিসের ক্রেডিট ফ্রেডিট হাবিজাবি। মাথা পুরাই আউলা জাউলা হয়ে যায়। হ্যাঁ, এই আউলা জাউলা মাথা ঠিক করার জন্যই এই লেখা। চলুন দেখি কি এই জিনিস।
ECTS কি ?
ইসিটিএস (ECTS), ইউরোপীয় কমিউনিটি ক্রেডিট ট্রান্সফার সিস্টেম, ইউরোপীয় সম্প্রদায়ের কমিশন দ্বারা উন্নত করা হয়েছে যাতে বিদেশে পড়াশোনার একাডেমিক স্বীকৃতির নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য সাধারণ পদ্ধতি সরবরাহ করা যায়। এটি একটি সুন্দরতম সহজ পদ্ধতি প্রদান করে যার মাধ্যমে শিক্ষা অর্জনের পরিমাপ, মূল্যায়ন ও তুলনা করা এবং এক প্রতিষ্ঠান থেকে অন্য প্রতিষ্ঠানে স্থানান্তর করা যায়।
ইসিটিএস সিস্টেম অংশীদারী উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির মধ্যে পারস্পরিক বিশ্বাস এবং আস্থার নীতির উপর ভিত্তি করে চালু হয়। ইসিটিএস এর কয়েকটি নিয়ম, তথ্য সম্পর্কিত (কোর্স উপলভ্য), চুক্তি (নিজ এবং ইচ্ছুক <যেখানে স্থানান্তরিত হবে> প্রতিষ্ঠানের মধ্যে) এবং ক্রেডিট পয়েন্টগুলি ব্যবহার (কাজের চাপ নির্দেশ করতে) এই পারস্পরিক বিশ্বাস এবং আত্মবিশ্বাসকে শক্তিশালী করার জন্য নির্ধারিত হয়। প্রতিটি ECTS বিভাগ কেবল বিষয়বস্তুর শর্তাবলী ছাড়াও প্রতিটি কোর্সের জন্য ক্রেডিট সংখ্যা উল্লেখ করে দেওয়া কোর্সের বর্ণনা করবে।
ECTS ক্রেডিটঃ
ECTS ক্রেডিট কোর্স ইউনিটগুলিতে বরাদ্দকৃত মানগুলি তাদের প্রয়োজনীয় ছাত্রছাত্রীকে সম্পূর্ণ করার জন্য বর্ণনা করে থাকে। তারা প্রতিটি শিক্ষার্থীর পুরু একাডেমিক কোর্স এর অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি কাজ যেমন, বক্তৃতা, ব্যবহারিক কাজ, সেমিনার, ব্যক্তিগত অধ্যয়ন – লাইব্রেরি বা বাড়িতে- এবং পরীক্ষায় বা অন্যান্য কার্যক্রম সহ মোট কোর্সের কার্যক্রমের পরিমাণ মূল্যায়ন করে থাকে। এভাবে ইসিটিএস একটি আপেক্ষিক মূল্যায়ন করে থাকে।
ECTS – এ, ৬০ টি ক্রেডিট একটি বছরের অধ্যয়নের কাজের চাপ প্রতিনিধিত্ব করে; সাধারণত ৩০ ক্রেডিট একটি সেমিস্টারে জন্য দেওয়া হয়। ECTS উদ্দেশ্যে কোনও বিশেষ কোর্স স্থাপন করা হয় না, সব ECTS কোর্স অংশীদারী প্রতিষ্ঠানের মূলধারার কোর্স, যেমনটা সাধারণ নিয়ম অনুযায়ী নিজ ছাত্র-ছাত্রীরা অনুসরণ করে। এটি বিভিন্ন কোর্সের জন্য ক্রেডিট উপাধি অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের উপর নির্ভর করে। ECTS ক্রেডিট সব কোর্স ইউনিট এর জন্য বরাদ্দ করা উচিত – সেটা হোক বাধ্যতামূলক বা বিকল্প কোর্স। ক্রেডিটগুলি প্রকল্পের কাজ, থিসিস এবং ঐতিহাসিক স্থানগুলির জন্য বরাদ্দ করা যেতে পারে যেখানে এটি গবেষণা প্রোগ্রামের একটি স্বাভাবিক অংশ। শুধুমাত্র যখন কোর্স সম্পন্ন হয়েছে এবং সব নির্ধারিত পরীক্ষায় সফলভাবে নেওয়া হয়েছে নিশ্চিত হয় তখন ক্রেডিট পুরস্কার দেওয়া হয়।
উদাহরণস্বরূপঃ
জার্মানিতে সকল ডিগ্রি প্রোগ্রামে – ৬০ ক্রেডিট (প্রতি বছর), ৩০ ক্রেডিট (প্রতি সেমিস্টার)
মূল্যায়নঃ
বাংলা ভাষায়ঃ
১। চমৎকার
২। ভাল
৩। সন্তোষজনক
৪। পর্যাপ্ত (সর্বনিম্ন পাস মার্ক)
৫। অপর্যাপ্ত
জার্মান ও ইংরেজি ভাষায়ঃ
1———-sehr gut / excellent
2———-gut / good
3———-befriedigend / satisfactory
4———-ausreichend / sufficient – lowest passing grade
5———-mangelhaft / deficient
Credit এবং ECTS এর হিসাব – নিকাশঃ
ধরুন, আপনি বাংলাদেশী ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ প্রোগ্রাম এ ব্যাচেলর শেষ করেছেন এবং আপনার বিষয়ের মোট ক্রেডিট ১২৩ (Credit)। আপনি বিজনেস সম্পর্কিত কোন বিষয়ে মাস্টার্স এর জন্য জার্মানিতে আবেদন করতে চাচ্ছেন। দেখতে পেলেন ওয়েবসাইটে বলা আছে যে, জার্মান ইউনিভার্সিটিতে আবেদনের জন্য বিদেশী শিক্ষার্থীদের বিবিএ প্রোগ্রাম এ ব্যাচেলর লেভেলে কমপক্ষে ১৮০ ECTS শেষ করা থাকতে হবে। কিন্তু আপনার প্রোগ্রাম তো Credit এ আছে, আপনি কিভাবে বুঝবেন যে আপনি ১৮০ ECTS সম্পন্ন করেছেন কি না ? ঠিক তখনই মাথায় বিশাল বড় একটা বাজ পড়ে। চলুন এবার একটু হিসাব করি – ইউরোপের প্রায় সব দেশেই ১ বছরে সাধারণত ৬০ ECTS সম্পন্ন করতে হয়, সেই হিসেবে ব্যাচেলর ৩ বছরের হলে ৬০*৩ = ১৮০ ECTS। আর আপনার ক্রেডিট হচ্ছে ১২৩ , কোর্স ৪ বছরের, সুতরাং ১ বছরে ক্রেডিট সম্পন্ন হল ৩০.৭৫ Credit
তাহলে ১ বছরে,
বাংলাদেশী ৩০.৭৫ ক্রেডিট = ইইউ ৬০ ক্রেডিট (ECTS) অর্থাৎ 1 Credit (BD) = 60/30.75 = 1.95 ECTS (EU)
এখন আসি, আপনার মোট ক্রেডিট ECTS এ কত হল – >>
আপনার ক্ষেত্রে ১ ক্রেডিট = ১.৯৫ ECTS তারমানে আপনার কোর্সটি ইউরোপীয় ক্রেডিট এ মোট ১২৩*১.৯৫ = ২৩৯.৮৫ ECTS । অর্থাৎ আপনি উক্ত ইউনিভার্সিটিতে আবেদনের যোগ্য।
উদাহরণটি বাংলাদেশী ইউনিভার্সিটি থেকে ৪ বছর মেয়াদী মোট ১২৩ ক্রেডিট এর বিবিএ প্রোগ্রাম এর দেওয়া হয়েছে। আপনারটিও ঠিক এভাবেই হিসাব করে নিতে পারেন।
আশা করি মাথা আর আউলা জাউলা হবে না।
ECTS স্থানান্তর বা ট্র্যান্সফারঃ
বিদেশে অধ্যয়নরত ছাত্ররা কোনও ECTS অংশীদার প্রতিষ্ঠানে সফলভাবে পরিচালিত সমস্ত অ্যাকাডেমিক কাজের জন্য সম্পূর্ণ ক্রেডিট পাবে এবং ছাত্র এবং প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিদেশে প্রোগ্রাম জড়িত একটি সমীক্ষা বিষয়বস্তুর পূর্বে শেখার চুক্তির ভিত্তিতে তারা একটি অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান থেকে এই অ্যাকাডেমিক ক্রেডিট হস্তান্তর করতে সক্ষম হবে।
ECTS অংশগ্রহণকারী অধিকাংশ ছাত্র ক্রেডিট ট্র্যান্সফার করে তাদের পার্টনার ইউনিভার্সিটি নির্দিষ্ট সময় পড়ার পর পুনরায় তাদের আগের প্রতিষ্ঠানে ফিরে আসতে পারে এবং এখানেই পড়া চলমান রাখতে পারে। অনেকে আবার ফিরে না এসে সেখান থেকেই ডিগ্রি শেষ করতে পারে, সেটা নির্ভর করে ২ ইউনিভার্সিটির সমঝোতাকালীন শর্তের উপর।
যদি ছাত্র স্থানান্তরিত প্রতিষ্ঠানে থাকার এবং ডিগ্রি নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, তবে সেই দেশ, প্রতিষ্ঠান এবং বিভাগের আইন, প্রাতিষ্ঠানিক ও বিভাগীয় নিয়ম অনুযায়ী স্টাডি কোর্সটি গ্রহণ করতে হবে।
তথ্যসূত্রঃ
ফেসবুক মন্তব্য
Print Friendly, PDF & Email
 
শেয়ার করুনঃ

Mahedi Hasan

স্বপ্নবাজ ও ভ্রমণপিপাসু একজন মানুষ। নতুন কিছু জানতে ও শিখতে ভালো লাগে। নিজে যা জানি তা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার সম্পর্কেঃ http://www.hmahedi.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *